একনাগাড়ে প্রায় ৪০ ঘণ্টা আলো দেবে আশ্চর্য প্রদীপ আবিষ্কার করল জাতীয় পুরস্কার প্রাপ্ত কারিগর

9
একনাগাড়ে প্রায় ৪০ ঘণ্টা আলো দেবে আশ্চর্য প্রদীপ আবিষ্কার করল জাতীয় পুরস্কার প্রাপ্ত কারিগর

সামনেই আলোর উৎসব “দিওয়ালি” আসতে চলেছে। “দিওয়ালি” উপলক্ষে মেতে উঠবে সারা দেশ। করোনার জন্য অন্যান্য সব উৎসবের মতো “দিওয়ালি”র আনন্দেও কিছুটা কাটছাঁট হতে চলেছে। তবে, করোনা ভয়কে সঙ্গী করেই দেশজুড়ে উৎসবের প্রস্তুতি শুরু হয়ে গিয়েছে। “দিওয়ালি” মানেই আলোর উৎসব। দেশের প্রতিটি মানুষ ঐদিন রাতে প্রদীপ, মোমবাতির শিখা জ্বালিয়ে জীবনের অন্ধকার দূর করতে চাইবেন।

এই উৎসবের জন্যেই বিশেষত ছত্তিশগড়ের এক বাসিন্দা তথা জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত কারিগর অশোক চক্রধারী এমন এক মাটির প্রদীপ আবিষ্কার করলেন, যা প্রায় ৪০ ঘন্টা একনাগাড়ে জ্বলে আলো দেবে। ওই কারিগর জানিয়েছেন, এই ধরনের প্রদীপ তিনি প্রায় ৩৫ বছর আগে দেখেছিলেন। সেখান থেকেই তার এই ভাবনা মাথায় আসে। বিশিষ্ট সংবাদ সংস্থা এএনআই কারিগর এবং তার আবিষ্কৃত আশ্চর্য প্রদীপের বেশ কিছু ছবি সোশ্যাল মিডিয়া আপলোড করেছে।

ওই কারিগর জানিয়েছেন, চলতি বছরের নবরাত্রী উৎসব উপলক্ষে এক গ্রাহক তাকে ফোন করে তার আবিষ্কৃত আশ্চর্য প্রদীপ নিতে চেয়েছিলেন। “দিওয়ালি” উপলক্ষে গ্রাহকের চাহিদা মেটাতে বর্তমানে অশোক চক্রধারীর কারখানাতে রোজ প্রায় ৫০-৬০টি করে প্রদীপ তৈরি হচ্ছে। প্রতিটি প্রদীপের দাম তিনি ২০০ থেকে ২৫০ টাকার মধ্যে ধার্য করেছেন। উল্লেখ্য, এই প্রদীপের জন্যই জাতীয় পুরস্কার পেয়েছেন তিনি। সাধারণ মানুষের কাছে তার আবিস্কৃত প্রদীপের চাহিদাও প্রবল।