বিশ্বের সবথেকে দামী ওষুধ যার এক ডোজের দামই ১৮ কোটি টাকা! জানুন কোন রোগের ওষুধ

60
বিশ্বের সবথেকে দামী ওষুধ যার এক ডোজের দামই ১৮ কোটি টাকা! জানুন কোন রোগের ওষুধ

লাখে একটা নয় বরং কোটিতে একটা! এরকমই একটি রোগকে শায়েস্তা করতে বিশ্ববাজারে হাজির বিশ্বের সবথেকে দামি ওষুধ। এই রোগের নাম রোগের নাম স্পাইনাল মাসকুলার অ্যাটরোফি, যা প্রতি এক কোটি মানুষের মধ্যে থেকে একজনকে আক্রমণ করতে পারে। এমন কোটিতে একটা রোগের ওষুধের দামও যে বিশ্বের সবথেকে বেশি দাম সম্পন্ন ওষুধের তালিকার অন্তর্ভুক্ত হবে এমনটাই স্বাভাবিক।

স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, এটি একটি বিরলতম জেনেটিক রোগ। যাদের শরীরের এই রোগ বাসা বাঁধে তাদের রীতিমতো পঙ্গু করে ছাড়ে। তাদের শরীরের পেশী গুলি দুর্বল হয়ে পড়ে। ফলে তারা হাঁটা চলার ক্ষমতা হারিয়ে ফেলেন। রোগের সঙ্গে লড়াই করতে করতে একসময় মৃত্যুর কোলেই ঢলে পড়তে হয় তাদের। মানব জীবনে এমন রোগ অভিশাপস্বরূপ। কারণ এই রোগে রোগী তো বটেই, রোগীর পরিবারও সর্বস্বান্ত হয়ে পড়ে।

এমন রাজ রোগের সঙ্গে লড়াই করতে গেলে যে খরচ পড়ে স্বভাবতই সেই অর্থ বহন করার ক্ষমতা থাকে না সাধারণ পরিবারের। কারণ এই রোগেরসঙ্গে লড়াই করার জন্য যে ঔষধ প্রয়োজন তার একটি ডোজের দামই ১৮ কোটি টাকা! সম্প্রতি ইংল্যান্ডের “জাতীয় স্বাস্থ্য পরিষেবা” সংস্থার তরফ থেকে বিশ্বের এই সর্বাধিক দামি ওষুধটিকে ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে।

স্পাইনাল মাসকুলার অ্যাটরোফি রোগের সঙ্গে লড়াই করার জন্য জোলগেনসমা সংস্থার তরফ থেকে বাজারে ছাড়া হয়েছে বিশ্বের সর্বাপেক্ষা দামি ওষুধ “নোভার্টিস জেনে থেরাপিয়েস”। তবে আপাতত বয়স্ক রোগীরা এই ওষুধ ব্যবহার করতে পারবেন না বলেই জানানো হয়েছে। শিশুরা যদি তাদের শরীরে এসএমএ-র প্রথম টাইপ নিয়ে জন্মগ্রহণ করে তাহলে প্রাথমিক অবস্থায় তাদের শরীরে এই ওষুধ প্রয়োগ করলে তারা স্বাভাবিক জীবনযাত্রায় ফিরে আসতে পারবে।