ভারী বৃষ্টির ফলে রাজ্য জুরে হলুদ সতর্কতা জারি আবহাওয়া দপ্তরের

6
ভারী বৃষ্টির ফলে রাজ্য জুরে হলুদ সতর্কতা জারি আবহাওয়া দপ্তরের

দিন যাচ্ছে আর বেশী ঘনীভূত হচ্ছে নিম্নচাপ, আর তারফলেই আগামী রবিবার ফের নতুন করে বৃষ্টির সম্ভাবনা তৈরী হচ্ছে রাজ্যে। এই বৃষ্টি বিশেষ করে দক্ষিণ বঙ্গের ওপরেই যে প্রভাব ফেলবে সেটা কিন্তু স্পষ্ট জানিয়েছে আবহাওয়া দপ্তর।

রবিবার থেকে এই বৃষ্টির সম্ভাবনা আছে দক্ষিণবঙ্গের উপকূলের জেলাগুলোতে, দুই বর্ধমান ঝাড়গ্রাম বাঁকুড়া, দুই মেদিনীপুর, দুই ২৪ পরগণা। এখানেই শেষ না, কারণ আগামী সোমবার আরও বৃষ্টি বাড়বে রাজ্যে, যার ফলে আগামী কয়েকদিন দক্ষিণবঙ্গে ভারী থেকে অতিভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা আছে।

আগামী রবিবার ২০ সেপ্টেম্বর যেখানে উত্তর পূর্ব বঙ্গোপসাগরে তৈরী হচ্ছে ফের নিম্নচাপ। আর তারফলেই আগামী কয়েকদিন বিশেষ করে মঙ্গলবার, বুধবার ২২-২৩ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত এই বৃষ্টির দাপট থাকবে। সব জায়গায় জারি করা হয়েছে হলুদ সতর্কতা। এই নিম্নচাপের ফলে স্বাভাবিকভাবেই সমুদ্র উত্তাল অবস্হায় থাকবে।

সেই কারণেই আগামী কয়েকদিন মৎসজীবী দের সমুদ্র থেকে দূরে থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। দক্ষিণবঙ্গের ৭-৮ জেলায় আগামী ২১ সেপ্টেম্বর থেকেই ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া দপ্তর। সেই জেলাগুলোর নাম ঝাড়গ্রাম, বাঁকুড়া, পুরুলিয়া, দুই মেদিনীপুর, দুই বর্ধমান, দুই ২৪ পরগণা।

এদিকে দক্ষিণবঙ্গের সাথে উত্তরবঙ্গের অবস্হাও তেমন একটা ভালো না, কারণ এই উত্তরবঙ্গেও হলুদ সতর্কতা জারি করেছে আবহাওয়া দপ্তর। আর সেই কারণেই উত্তর বঙ্গের অবস্হা খারাপ, কারণ বিভিন্ন জায়গায় তৈরী হয়েছে বন্যা পরিস্থিতি। বিশেষ করে হিমালয়ের পাদদেশে এই মৌসুমী অক্ষরেখার অবস্হানের কারণেই এই বৃষ্টির পরিমাণ বৃদ্ধি। বিশেষ করে পাহাড়ে বৃষ্টির পরিমাণ বৃদ্ধি পেয়েছে, তবে উত্তর বঙ্গের ৫জেলায় এই বৃষ্টির দাপট অনেকটাই, আগামী কয়েকদিন এই বৃষ্টি চলবে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া দপ্তর। কোচবিহার আলিপুরদুয়ার জলপাইগুড়ি দার্জিলিং কালিংপং সব জায়গায় ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা আছে।