দীর্ঘ প্রতীক্ষার অবসান! খুব শীঘ্রই বাজারে আসতে চলেছে ওয়াটার বাইক

13
দীর্ঘ প্রতীক্ষার অবসান! খুব শীঘ্রই বাজারে আসতে চলেছে ওয়াটার বাইক

টানা আট বছর ধরে তৈরি হচ্ছে এই ওয়াটার বাইক। স্বাভাবিকভাবেই যা নিয়ে মানুষের উত্তেজনা একেবারে তুঙ্গে। কিন্তু কেন এই উত্তেজনা? গত কয়েকবছর আগে একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছিল Manta5 Hydrofoiler ই ওয়াটার বাইকের। এতদিন এই ওয়াটার বাইক এর অপেক্ষায় ছিল অনেকেই, যার অবসান ঘটতে চলেছে এর মধ্যেই।

কারণ ইতিমধ্যেই নিউজিল্যান্ডের এই ওয়াটার বাইক তৈরি সংস্থাটি ডেলিভারি শুরু করবে, যার বাজার মূল্য রাখা হয়েছে ভারতীয় মুদ্রায় সাড়ে পাঁচ লক্ষ টাকা। সমস্ত বিষয় মাথায় রেখেই কার্বন ফাইবার ও অ্যালুমিনিয়াম বডি ব্যবহার করা হয়েছে ওয়াটার বাইকের। এই বাইকের ওজন রাখা হয়েছে 64 পাউন্ড আর সর্বোচ্চ 220 পাউন্ড ওজন বহন করতে সক্ষম।

মোটরবাইক যাতে জলে খুব স্বাধারণ ভাবেই ভাসতে পারে ও দ্রুত চলতে পারে তার জন্য সামনেও পিছনে দুটি প্রপেলার রাখা হয়েছে। আর এই প্রোপেলারের উপরে রয়েছে সিট বসার জন্য, প্যাডেল মারলেই চলবে এই বাইক কিন্তু 22 কিলো ওয়াট ব্যাটারি ব্যবহার করেও এক ঘন্টার মতো অ্যসিস্ট পাওয়া যাবে।

তবে বাইক চালানোর আগে কিছু শর্তাবলী মানা জরুরি, যারা একমাত্র সাঁতারে দক্ষ তারাই এই বাইক চালাতে সক্ষম হবে। এই বাইক চালানোর সময় পড়তে হবে লাইভ জাকেট যেটা বাধ্যতামূলক। মোটকথা তিন ফিট জলের গভীরতা থাকলেই ইলেকট্রিক বাইক সহজেই চালানো সম্ভব। এমনকি সাত ফুট গভীরতা থাকলেও এই প্যাডেল সহজেই করা সম্ভব।