বাচ্চাকে উঠিয়ে নিয়ে গিয়েছিল চিতাবাঘ! দীর্ঘ ১ কিলোমিটার পথ দৌড়ে ছেলেকে বাঁচিয়ে আনেন মা

5
বাচ্চাকে উঠিয়ে নিয়ে গিয়েছিল চিতাবাঘ! দীর্ঘ ১ কিলোমিটার পথ দৌড়ে ছেলেকে বাঁচিয়ে আনেন মা

মা তার সন্তানের জন্য নিজের মৃত্যুকেও যে ভয় পায় না তা আবার প্রমান করল এই ঘটনাটি। ঘটনাটি ঘটেছে মধ্যপ্রদেশের সিভি জেলায়। ৬ বছরের এক বাচ্চাকে উঠিয়ে নিয়ে গিয়েছিল এক চিতাবাঘ। সেই চিতা বাঘের সাথেই দীর্ঘ ১ কিলোমিটার পথ দৌড়ে নিজের ছেলেকে বাঁচিয়ে আনেন মা কিরণ বেগা।

কুসমি ব্লকের সঞ্জয় টাইগার বাফার জোনে গত ২৮শে নভেম্বর ঘটেছে ঘটনাটি। এই বাফার জোনে টমসার রেঞ্জের বাড়িঝাড়িয়া গ্রাম, যেখানে চারিদিক জঙ্গলে ঘেরা, আবার কিছুটা পাহাড়ি এলাকায়ও আছে, সেইখানেই রবিবার সন্ধ্যে ৭ টার সময় কিরণ তার নিজের ৬ বছরের ছেলের সাথে কাজ করছিলেন, সেই সময় তার স্বামী শংকর বেগাও অন্য কাজে বাড়িতে উপস্থিত ছিলেন না। কিরনের পাশেই ছিল তাঁর ছেলে, সেই সময় হঠাৎই একটি চিতাবাঘ তার ছেলেকে তুলে নিয়ে যায় এবং তা বুঝতে পেরে কিরণ চিতাবাঘটির পিছনে ধাওয়া করেন।

দীর্ঘ এক কিলোমিটার পথ দৌড়ে শেষমেষ তিনি চিতা বাঘের থাবা থেকে নিজের ছেলেকে ফিরিয়ে আনতে সক্ষম হন। যদিও এতে তাঁর নিজেরও শারীরিক অনেক ক্ষতি হয়েছে , চিতাবাঘের আঁচড়ও পড়েছে মহিলার গায়ে, এহেন সাহস কে কুর্নিশ জানাতেই হয়। তবে চিতা বাঘের সাথে লড়াই করার সময় তার চিৎকার শুনে গ্রামবাসীরা ছুটে আশে, আর মানুষের আওয়াজ পেয়ে বাঘটি দৌড়ে জঙ্গলে ঢুকে যায়।

অতঃপর মহিলাটিও সেখানে জ্ঞান হারায়, তারপর তাদেরকে দ্রুত চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। শিশুটির গলায়, পিঠে এবং চোখেও যথেষ্ট ক্ষতি হয়েছে। অন্যদিকে মায়ের শরীরে রয়েছে বাঘের নখের দাগ, তবে আশা করা যায় তারা দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠবে। এহেন দুঃসাহসিক মায়ের ভিডিও মুহূর্তেই ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়াতে।