ভালোবাসার পথে বাধা হওয়ায় বাবাকে পথ থেকে সরিয়ে দিল মেয়ে

13
ভালোবাসার পথে বাধা হওয়ায় বাবাকে পথ থেকে সরিয়ে দিল মেয়ে

ভালোবাসার পথে বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছিল বাবা, এবার ভালোবাসা পাওয়ার জন্য বাবাকে পথ থেকে সরিয়ে দিল মেয়ে। দীর্ঘদিন থেকেই এক যুবকের সাথে ভালোবাসার সম্পর্ক ছিল মেয়ের। কিন্তু বাবা সেটা কিছুতেই মেনে নিতে চাইছিল না। তাই এবার বাবাকে খুন করল মেয়ে শুধু তাই নয়, সুপারী কিলারকে দিল একটি হিরের আংটিও। ঘটনাটি ঘটেছে জামশেদপুরের কাছে হরিওম নামক এলাকায়। মৃত ব্যক্তির নাম কানাইয়া সিং। এই খবর সামনে আসতেই অবাক হয়ে যায় সকলে, কিভাবে একজন মেয়ে তার বাবাকে খুন করতে পারে প্রেমের সম্পর্ক টিকিয়ে রাখার জন্য। ইতিমধ্যে পুলিশ তদন্ত করে মেয়ে অপর্ণা সিং তার প্রেমিক রাজবীর সিং সহ
বন্দুকবাজ নিখিল গুপ্তা ও জেলা কংগ্রেস সভাপতি ছোটারাই কিস্কুর নাবালক সন্তানকেও ইতিমধ্যেই গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা যায় গত ৫ বছর তাদের এই সম্পর্ক। কিন্তু বাবা কখনোই মেয়ের এই সম্পর্ককে মেনে নেয়নি, বাবা বারবার মেয়েকে বকাবকি করেছে । কিন্তু মেয়েও শুনতে নারাজ বাবার কথা। মুখে যখন কাজ হয়নি তখন একদিন রাজবীর কে ডেকে কানাইয়া সিং ভয় পর্যন্ত দেখিয়েছে। শুধু তাই নয় কানাইয়া সিং রাজবীরের পরিবারকে মারামারি করেছে, তার কারণে ভয়ে রাজবীর ও তার পরিবার নিজেদের বাড়ি বিক্রি করে অন্য জায়গায় গিয়ে থাকত । মেয়ের বাবার ভয়ে ছেলে অপর্নার সাথে কথাবার্তা বন্ধ করে দেয় প্রায়। সেই কারণে মেয়ে ইদুর মারার বিষ খেতে যাচ্ছে এমন ভিডিও পর্যন্ত পাঠায় রাজবীরকে। এরপরে আবার একে অপরের কথা শুরু হয়। এরপরেই তারা রাস্তা থেকে বাবাকে সরিয়ে দেওয়ার প্ল্যান শুরু করে, প্রথমবার অবশ্য প্ল্যান ভেস্তে যায় ঠিকই কিন্তু দ্বিতীয়বার হোয়াটসঅ্যাপে বাবার লোকেশন পাঠিয়ে দেয় অপর্না, এরপরেই রাজবীর ও নিখিল একেবারে নিকেশ করে কানাইয়া সিং কে।।