রাজ্যে নতুন ২৭টি বাঘের সন্ধান পাওয়া গিয়েছে বলে জানালো বন দফতর

7
রাজ্যে নতুন ২৭টি বাঘের সন্ধান পাওয়া গিয়েছে বলে জানালো বন দফতর

একটা সময় এমন এসে দাঁড়িয়েছিল যে বন্য প্রেমীরা বনে গেলে বেশি বাঘ দেখতে পেত না। ফলে গ্রামে গ্রামে প্রচার করতে শুরু হয়েছিল ” সেভ টাইগার সেভ বেঙ্গল ” । কিন্তু বর্তমানে জানা যাচ্ছে চিত্রটা ভিন্ন হয়ে গিয়েছে। শুধু তাই নয়, জানা যাচ্ছে বাংলাদেশের তুলনায় আমাদের রাজ্যে বাঘের সংখ্যা বেশি হয়ে গেছে। এমনকি বাংলাদেশ থেকে বাঘ এখানে চলে আসছে বলেও জানা যাচ্ছে।

সম্প্রতি পশ্চিমবঙ্গ সরকারের উদ্যোগে বন দফতরে অনেক কিছু বদল হয়েছে। বাঘ যাতে জঙ্গলেই থাকে গ্রামে না আসে বা অন্য কোনো রাজ্যে না চলে যায় তার জন্য রীতিমত নৌকা করে হরিণ, ছাগল এসব সুন্দরবন জঙ্গলে ছেড়ে আসার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। যাতে রয়েল বেঙ্গল টাইগার পর্যাপ্ত খাবার পায়। কারণ জঙ্গলে খাবার থাকলে কেউই বাইরে আসবে না। তবুও গ্রামের সুরক্ষার জন্য অ‌্যালিমুনিয়াম ফ্লেক্সিবল তারজাল দিয়ে ঘিরে দেওয়া হচ্ছে।

আর এই কাজ গুলি করার পরে বর্তমানে রয়‌্যাল বেঙ্গল টাইগারের সংখ‌্যা কমবেশি ১২৩টি। ‘‘গতবছরের বাঘ শুমার অনুযায়ী আমাদের রাজ্যের সুন্দরবনে বাঘের সংখ‌্যা ছিল ৯৬টি। এ বছরের শুমারের তথ‌্য ও ছবি হায়দরাবাদে পাঠানো হয়েছে। রিপোর্ট এখনও আসেনি। তবে সংখ‌্যা বাড়ার ঈঙ্গিত মিলেছে। নতুন ২৭টি বাঘের সন্ধান পাওয়া গিয়েছে,’’ বলছেন এই রাজ্যের বনমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক। তিনি একটা হিসাব দিয়েছেন তাতে, তিনি জানাচ্ছেন, ‘‘শুমার করতে গিয়ে সুন্দরবন এলাকায় রামগঙ্গা ও অন‌্যান‌্য এলাকায় অন্তত পাঁচটি দ্বীপে বাঘের সন্ধান মিলেছে। এই দ্বীপগুলিতে টাইগার রিজার্ভ এরিয়ার অন্তর্ভুক্ত করা হচ্ছে। এখানকার সংখ‌্যাটাও যোগ হবে। আগামিদিনে এখানকার বাঘেরাও বাচ্চার জন্ম দেবে। সংখ‌্যায় বাড়বে।’’
শুধু তাই নয় এই প্রক্রিয়ায় বাংলাদেশের বাদাবনের বাঘ ও সুন্দরবনে খাবারের জন্য চলে আসছে বলে দেখা গিয়েছে।