কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রকের তরফে ফের ঘোষণা হতে পারে আর্থিক ত্রাণ প্যাকেজ

15
কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রকের তরফে ফের ঘোষণা হতে পারে আর্থিক ত্রাণ প্যাকেজ

করোনার কারণে দীর্ঘ প্রায় এক বছরেরও বেশি সময় ধরে ধুঁকছে পর্যটন, বিমান পরিবহণ, হোটেল-রেস্টুরেন্ট এবং ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প সংস্থাগুলি। এই সংস্থাগুলিকে রক্ষা করার জন্য ইতিপূর্বে একবার কেন্দ্রের তরফ থেকে আর্থিক ত্রাণ প্যাকেজ ঘোষণা করা হয়েছিল। তবে তাতে অবশ্য লাভ কিছুই হয়নি। করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের দাপটে ফের বিধ্বস্ত হয়েছে দেশের অর্থনীতি।

দেশের অর্থনীতির হাল ফেরাতে তাই আরো একবার আর্থিক প্যাকেজের চিন্তাভাবনা করছে কেন্দ্রীয় সরকার। বিশিষ্ট সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর, কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রক ইতিমধ্যেই আর্থিক ত্রাণ প্যাকেজ নিয়ে ভাবনা চিন্তা করতে শুরু করেছে। তবে এই ত্রাণ প্যাকেজ কবে ঘোষণা করা হবে তা এখনো পর্যন্ত জানানো হয়নি। আশা করা হচ্ছে দেশের অর্থনৈতিক পরিস্থিতি বিবেচনা করে শীঘ্রই ত্রাণ প্যাকেজ ঘোষণা করবে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রক।

কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন ইতিমধ্যে একাধিক অর্থনীতিবিদের সঙ্গে কথা বলে আর্থিক ত্রাণ প্যাকেজের সম্ভাব্য রূপরেখা তৈরি করার জন্য প্রাথমিক পর্যায়ের আলোচনা সেরে নিয়েছেন। অর্থমন্ত্রকের এক উচ্চপদস্থ আধিকারিক অবশ্য জানাচ্ছেন ভারতে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ গত বছরের তুলনায় ততটা ভয়ঙ্কর এবং সুদূর প্রসারী প্রভাব ফেলবে না বলেই মনে করছে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রক।

কেন্দ্রের অনুমান, লকডাউন এবং নিয়ন্ত্রণমূলক বিভিন্ন ব্যবস্থাপনা গ্রহণ করে রাজ্যগুলি ইতিমধ্যে করোনা নিয়ন্ত্রণের ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে। কেন্দ্রের তরফ থেকেও অবশ্য এই বিষয়টি সম্পূর্ণ ভাবে রাজ্যের উপর ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। এতে আগামী দুই মাসের মধ্যেই করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসবে বলে আশা করছে কেন্দ্র।