করোনায় মৃতের পরিবার এই বিমার আওতায় পেতে পারেন প্রায় ২ লক্ষ টাকা

19
করোনায় মৃতের পরিবার এই বিমার আওতায় পেতে পারেন প্রায় ২ লক্ষ টাকা

দেশজুড়ে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ধীরে ধীরে বাড়তে চলেছে। প্রত্যেকদিন দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় তিন লক্ষ্যের উপরে। প্রত্যেকদিন অক্সিজেনের জন্য ছোটাছুটি করতে হয়েছে মানুষকে। দেশের অবস্থা এখন খুবই শোচনীয়। এমতাবস্থায় ভারতবর্ষকে সাহায্যের জন্য এগিয়ে এসেছে প্রতিবেশী সমস্ত দেশ। তবে এই মুহূর্তে আপনাকে জানাবো এমন একটি কথা যা হয়তো এতদিন আপনার কাছে অজানা ছিল।

আপনি হয়তো জানেন না যে করোনাই মৃত্যু করে কেন্দ্রীয় একটি বীমা প্রকল্প অনুযায়ী নিজের পরিবার প্রায় ২ লক্ষ টাকা পর্যন্ত পেতে পারে। কেন্দ্রীয় সরকারি বীমার বাৎসরিক প্রিমিয়াম প্রায় ৩৩০ টাকা। করোনায় মৃত ব্যক্তি যদি বিমা করা থাকে তাহলে তার নামেনি পেতে পারেন প্রায় ২ লক্ষ টাকা।

নিয়ম অনুযায়ী, ১৮ বছর থেকে শুরু করে ৫০ বছর বয়সে যে কোন ব্যক্তি এই বীমা করতে পারেন। করোনায় মৃতের পরিবার Pradhan Mantri Jeevan Jyoti Bima Yojana-র আওতায় এই বিশেষ সাহায্য পেতে পারেন। ৫০ বছরের কম যে কোন ব্যক্তির যদি অপঘাতে মৃত্যু হয়, তাহলে সেই ক্ষেত্রে এই বীমার টাকা তারা পেতে পারেন।

বছরের যেকোনো সময় এই বীমা কিনতে পারবেন আপনি। দুই মাস অথবা তিন মাসের ছোট ছোট কিস্তিতে এই বীমার প্রিমিয়াম দেওয়া যায়। বিমাকারী যে ব্যাংক থেকে আপনি কিনবেন এই বীমা, এবং প্রিমিয়াম দেবেন, সেই ব্যাংকেই পরিজনের মৃত্যুর পর বীমার টাকা ক্লেম করতে পারবেন আপনি।

সাধারণত এই ধরনের বীমার টাকা বীমাকারীর মৃত্যুর ৩০ দিনের মধ্যেই ক্লেম করতে হয়। কিন্তু অনেক ক্ষেত্রে মৃত্যুর কারন সহ মেডিকেল রিপোর্ট এবং ডেথ সার্টিফিকেট পেতে অনেক দেরি হয়ে যায় তার আত্মীয়-স্বজনের। সেই ক্ষেত্রে দুশ্চিন্তা করার কোন কারণ নেই।

সময় মত আপনি বৈধ নথিপত্র জমা দেবার এক মাসের মধ্যেই টাকা পেয়ে যাবেন। তার আগে জানিয়ে দেবেন যে আপনার কেন বৈধ নথিপত্র জমা দিতে দেরি হচ্ছে।