শান্তিপূর্ণ ভোট করাতে 100% স্পর্শ কাতর এলাকা হিসেবে কাজ করছে কমিশন

13
শান্তিপূর্ণ ভোট করাতে 100% স্পর্শ কাতর এলাকা হিসেবে কাজ করছে কমিশন

পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভা ভোটের আগে নির্বাচন কমিশনের বড় পদক্ষেপ। তারা মনে করছে 2019 এর লোকসভা ভোটের কথা মাথায় রেখেই পশ্চিমবঙ্গে বর্তমানে স্পর্শ কাতর এলাকার সংখ্যা দ্বিগুণ হয়েছে। আর সেই কারণেই 100% স্পর্শ কাতর এলাকা হিসেবে কাজ করতে চাইছে নির্বাচন কমিশন। তাই এবার সমস্ত বোধ কেন্দ্রীয় বাহিনীর অধীনে থাকবে বলে জানিয়েছেন তারা।

ইতিমধ্যেই রাজ্যে এসে পৌঁছেছে 295 কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনী। জানা যাচ্ছে প্রথম দফার ভোট এর আগে আরো দুইশো কম্পানি হাজির হবে বাংলায়। রাজ্যের প্রথম দফায় মোট ষাটটি আসনে নির্বাচন হচ্ছে, আর সবগুলোতেই হাই এলার্ট জারি করা হয়েছে।স্বাভাবিকভাবে বুথের বাইরে উপস্থিত থাকবে আধাসামরিক বাহিনী তাছাড়া নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা বজায় রাখার জন্য, 200 মিটার এলাকা আধাসামরিক বাহিনীর নিরাপত্তায় রাখার চিন্তাভাবনা চলছে।

মোট কথা নির্বাচন কমিশন চাইছে কোনোভাবেই যাতে নির্বাচন চলাকালীন অশান্তির সৃষ্টি না হয়। ইতিমধ্যেই কেন্দ্রীয় বাহিনীর সব জায়গায় টহল দারি শুরু হয়েছে। নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা গেছে, যতদিন না ভোট শেষ হচ্ছে, ততদিন চলবে এই টহলদারি। যাতে শান্তিপূর্ণ ভোটগ্রহণ করা যায় সেই কারণে চলছে টহলদারি, এমনকি সাধারণ ভোটারদের কথা বলছে তারা, আশ্বস্ত করার চেষ্টা করছে তাদের। মোটকথা শান্তিপূর্ণ ভোট করানোর জন্য কেন্দ্রীয় বাহিনীর ওপর ভরসা রাখছেন নির্বাচন কমিশন।