কেন্দ্রীয় বাহিনীকে “অশান্তি” করতে দেখলেই ঘেরাও করার নির্দেশ মুখ্যমন্ত্রীর

4
কেন্দ্রীয় বাহিনীকে

একুশের বিধানসভা নির্বাচনে কেন্দ্রীয় বাহিনীর বিরুদ্ধে ভোট প্রভাবিত করার মতো একাধিক অভিযোগ উঠেছে। কেন্দ্রীয় বাহিনী কেন্দ্রের নির্দেশনায় কাজ করছে, তৃণমূলের তরফ থেকে এমন অভিযোগ আগেই উঠেছে। রাজ্য সরকারের কিছু পুলিশকর্মীর বিরুদ্ধেও বিজেপির হয়ে ভোট প্রভাবিত করার অভিযোগ তুলেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এমন কাজ করলে কেন্দ্রীয় বাহিনীকে ঘেরাও করার নিদান দিলেন মুখ্যমন্ত্রী।

মুখ্যমন্ত্রীর অভিযোগ, কেন্দ্রীয় বাহিনী কার্যত কেন্দ্রের সঙ্গে “আন্ডারস্ট্যান্ডিং” পদ্ধতিতে চলছে। তাই তারা যদি কেন্দ্রের তরফ থেকে ভোট প্রভাবিত করার চেষ্টা করেন তাহলে তাদের ঘেরাও করার নির্দেশ দিয়েছেন তৃণমূল সুপ্রিমো। তিনি বলেন, কেন্দ্রীয় বাহিনীকে তিনি সম্মান করে। তবে “বিজেপির কেন্দ্রীয় বাহিনী”র প্রতি বিন্দুমাত্র সম্মান প্রদর্শন করতে চান না তিনি।

তাই কোথাও কেন্দ্রীয় বাহিনীকে “অশান্তি” করতে দেখলেই একদলকে তাদের ঘেরাও করার নির্দেশ দেন মুখ্যমন্ত্রী। এরপর বাকিদের ভোট দিতে যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি। অবশ্য “ঘেরাও” এর অর্থও স্পষ্ট করেছেন নেত্রী। তিনি বুঝিয়ে দিয়েছেন ঘেরাও করার অর্থ হল কেন্দ্রীয় বাহিনীকে আটকে রাখা।

তবে তৃণমূল সুপ্রিমো এমন বক্তব্যকে কেন্দ্র করে রাজনৈতিক মহল জোর সমালোচনায় মুখর হয়েছে। বিজেপির অভিযোগ, “সংবিধান বিরোধী নিদান” দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। তাই তৃণমূল সুপ্রিমোর এমন বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে ইতিমধ্যেই নির্বাচন কমিশনের কাছে অভিযোগ দায়ের করেছে বিজেপি।