ভোটে কারচুপি রুখতে ব্যালট ভোট সংগ্রহ করতে যাবে কেন্দ্রীয় বাহিনী

11
ভোটে কারচুপি রুখতে ব্যালট ভোট সংগ্রহ করতে যাবে কেন্দ্রীয় বাহিনী

পশ্চিমবঙ্গের আসন্ন বিধানসভা নির্বাচন উপলক্ষে বাংলার পরিস্থিতি অত্যন্ত গুরুত্ব দিয়ে বিবেচনা করছে নির্বাচন কমিশন। একুশের নির্বাচন যাতে সম্পূর্ণ শান্তিপূর্ণ ভাবে, নিরাপত্তার সহিত সম্পন্ন হয় তার জন্য কেন্দ্রীয় বাহিনীর উপর বিশেষ দায়িত্ব আরোপ করা হয়েছে। বাংলায় একুশের ভোটগ্রহণপর্ব সম্পন্ন হবে কেন্দ্রীয় বাহিনীর তত্ত্বাবধানে। কমিশনের তরফ থেকে তাই একের পর এক নজিরবিহীন সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হচ্ছে।

সাম্প্রতিক কালে নির্বাচন কমিশনের তরফ থেকে গৃহীত সিদ্ধান্ত অনুসারে, নির্বাচন চলাকালীন ব্যালেট সংগ্রহ করার সময় কেন্দ্রীয় বাহিনীকে সঙ্গে নিয়ে যেতে হবে। ভোটে কারচুপি রুখতেই প্রধানত নির্বাচন কমিশনের তরফ থেকে এমন সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে, এমনটাই অনুমান করছেন বিশেষজ্ঞরা। উল্লেখ্য, কমিশনের এই সিদ্ধান্তে কার্যত বিরোধীদের অভিযোগের উপরেই সীলমোহর পড়লো।

করোনা মহামারীর দরুন ৮০ বছরের ঊর্ধ্বের ভোটারদের জন্য বাড়ি বাড়ি ব্যালেট বাক্স নিয়ে গিয়ে ভোটগ্রহণের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে। এক্ষেত্রে ভোট কর্মীদের পাশাপাশি রাজ্য পুলিশের কর্মীরাদেরও ভোটারদের বাড়ি যাওয়ার কথা ছিল। তবে এতে শাসকদলের তরফে ভোটে কারচুপি করা হতে পারে, এই আশঙ্কা থেকেই কার্যত শান্তিপূর্ণ ভোট গ্রহণ প্রক্রিয়ার জন্য কেন্দ্রীয় বাহিনীর উপর বিশেষ দায়িত্ব আরোপ করা হলো।

উক্ত নির্দেশিকায় জানানো হয়েছে, ব্যালটে ভোট সংগ্রহ করার জন্য ভোট কর্মী, রাজ্য পুলিশ, কেন্দ্রীয় বাহিনীর পাশাপাশি দলীয় প্রতিনিধিরাও উপস্থিত থাকতে পারেন। পাশাপাশি একজন মাইক্রো অবজারভারও সঙ্গে থাকবেন। প্রসঙ্গত পশ্চিমবঙ্গে এই দফায় শান্তিপূর্ণ ভোট করাতে ইতিমধ্যেই ৪৯৫ কোম্পানির আধাসেনা বাংলায় প্রবেশ করেছে।