কঙ্গনাকে রক্ষা করার জন্য ওয়াই প্লাস ক্যাটাগরি সিকিউরিটি দেওয়া হবে বলে জানাল কেন্দ্র

6
কঙ্গনাকে রক্ষা করার জন্য ওয়াই প্লাস ক্যাটাগরি সিকিউরিটি দেওয়া হবে বলে জানাল কেন্দ্র

সম্প্রতি কঙ্গনা রানাওয়াত এর সঙ্গে শিবসেনার মুখপাত্র সঞ্জয় রাউত এর বচসা হবার পর শিবসেনার মুখপাত্র সঞ্জয় রাউত কঙ্কনাকে “হারামখোর” বলেন। সঞ্জয় রাউত এর এই ভাষা কে উদ্দেশ্য করে বলিউডের একাংশ খুবই ক্ষুব্ধ হয়ে যান। সঞ্জয় রাউত কঙ্গনা কে উদ্দেশ্য করে বলেন যে,”যদি মুম্বাই পুলিশ নিয়ে এতটাই আপনার অবিশ্বাস থেকে থাকে, তাহলে আপনাকে মুম্বাইতে আসতে হবে না”। এর প্রতি উত্তরে কঙ্গনা মুম্বাইকে পাক অধিকৃত কাশ্মীর বলে ব্যঙ্গ করেছেন। তিনি জানিয়েছেন যে,”আগামী ৯ সেপ্টেম্বর তিনি মুম্বাইতে আসছেন, যার যা করার করে নিক”।

এই কথোপকথন এরপর কঙ্গনা রানাউতের দিদি রঙ্গোলি কেন্দ্রের কাছে বোনের নিরাপত্তার জন্য সাহায্য চেয়ে ছিলেন।সেই আবেদনে সাড়া দিয়ে আগামী ৯ সেপ্টেম্বর যখন করা মুম্বাইতে আসবেন, তাকে রক্ষা করার জন্য ওয়াই প্লাস ক্যাটাগরি সিকিউরিটি দেওয়া হবে বলে জানানো হয়েছে কেন্দ্রে র তরফ থেকে।

সেন্ট্রাল রিজার্ভ পুলিশ ফোর্স এই বিষয়ে জানিয়েছেন, বেশ কিছুদিন ধরে কঙ্কনাকে যেভাবে প্রাণনাশের হুমকি দেওয়া হয়েছে, তার ফলে হিমাচল প্রদেশ সরকারের কাছে আবেদন করেছিলেন যাতে অভিনেত্রী কে রক্ষা করার জন্য কোন ব্যবস্থা নেওয়া হয়।
ওয়াই প্লাস ক্যাটাগরি র প্রতিরক্ষা বাহিনীর ১০ থেকে ১১ জন বন্দুকধারী কমান্ডার সর্বদা পাহারা দিবেন কঙ্কনাকে। এর মধ্যে দু’জন থেকে তিনজন পার্সোনাল সিকিউরিটি অফিসার সব সময় কঙ্গনাকে ঘিরে থাকবেন, এবং একজন সিকিউরিটি তার বাসস্থান এর সামনে মোতায়েন করা হবে। অভিনেত্রী ইতিমধ্যেই অমিত শাহ কে এই বিষয়ের জন্য ধন্যবাদ জানিয়েছেন।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, দেশের মধ্যে মাত্র ১৫ জন এই ধরনের ওয়াই ক্যাটাগরি সুরক্ষা বান। যার মধ্যে রয়েছেন দেশের প্রধান বিচারপতি এবং আইনমন্ত্রী। এবার কেন্দ্রের এই বিশেষ নিরাপত্তা অধীনে পড়বেন কঙ্গনা। কঙ্কনাকে হারামখোর বলার জন্য সঞ্জয় রাউত কে করা থেকে ক্ষমা চেয়ে নিতে বলায় সঞ্জয় রাউত বলেন যে, “আগে মহারাষ্ট্র বাসীর কাছে ক্ষমা চান কঙ্গনা”।