বাতিল হয়ে যাওয়া আইনের ধারায় রুজু হয়েছে মামলা! ক্ষোভ প্রকাশ সুপ্রিম কোর্টের

11
বাতিল হয়ে যাওয়া আইনের ধারায় রুজু হয়েছে মামলা! ক্ষোভ প্রকাশ সুপ্রিম কোর্টের

সময়ের পরিবর্তনের সঙ্গে সঙ্গে ভারতীয় সংবিধানের একাধিক আইন বাতিল করে দেওয়া হয়েছে। অথচ সেই আইনের আওতায় এখনো মামলা হয়ে চলেছে। এতে বেজায় বিরক্ত সুপ্রিম কোর্ট। ফলে সুপ্রিম কোর্টের তরফ থেকে একটি নির্দেশিকায় এই বাতিল হয়ে যাওয়া আইনের আওতায় জারি হওয়া সমস্ত মামলা তুলে নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এই যেমন আইটি আইনের ৬৬ এ ধারাটি বহু আগেই বাতিল হয়ে গিয়েছে। তাই এই ধারাতে যাতে আগামী দিনে কখনো মামলা না হয় তার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

এই আইনের আওতায় কোনো ব্যক্তির সোশ্যাল মিডিয়ায় করা পোস্ট ‘আপত্তিকর’ হলে তাঁর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে পারত প্রশাসন। তবে আইন বাতিল হয়ে যাওয়াতে সেই নিয়ম এখন আর খাটে না। তাই পুলিশ এখনো কেন ওই বাতিল হয়ে যাওয়া আইনের আওতায় সাধারণের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করছে তার পরিপ্রেক্ষিতে সওয়াল করেছিল সুপ্রিম কোর্ট। ২০১৫ সালের ২৪শে মার্চ আইনের এই ধারাটিকে সুপ্রিম কোর্টে বাতিল করে দেওয়া হয়।

পিইউসিএল নামে একটি এনজিও সম্প্রতি শীর্ষ আদালতে জানিয়েছে যে এই আইনের আওতায় ১১টি রাজ্যে ২২৯টি মামলা এখনো বাকি রয়েছে। ১৩০৭টি মামলা এই ধারায় রুজু করা হয়েছে। সব শুনে হতবাক হয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতিরা। তাদের কথা অনুসারে, এ অতি ভয়ঙ্কর ঘটনা। এর পরেই সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ অনুসারে নড়েচড়ে বসে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক।

ধারা বাতিলের পরেও বাতিল হওয়া ধারার আওতায় এফআইআর দায়ের হচ্ছে থানায়। বিষয়টিকে গুরুত্ব দিয়ে দেখছে সুপ্রিম কোর্ট। আগামী দিনে যাতে আইটি আইনে ৬৬ এ বাতিল ধারায় কোনও মামলা দায়ের না হয় তার জন্য সব থানায় নির্দেশ পাঠিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। যদি এ পর্যন্ত এই ধারার আওতায় কোথাও মামলা দায়ের হয়ে থাকে তাহলে অবিলম্বে তা প্রত্যাহার করে নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।