মাধ্যমিক এবং উচ্চমাধ্যমিকের মূল্যায়ন নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নিল পর্ষদ

13
মাধ্যমিক এবং উচ্চমাধ্যমিকের মূল্যায়ন নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নিল পর্ষদ

করোনার নতুন স্ট্রেইনের দেখা মিলেছে। করোনার তৃতীয় ঢেউ নিয়ে উদ্বেগ বাড়ছে। বর্তমান পরিস্থিতিতে শিক্ষাক্ষেত্রে ফের প্রশ্ন উঠছে আগামী বছরও কি তাহলে স্কুল-কলেজ বন্ধ হতে চলেছে? করোনার প্রকোপ বাড়লে নিঃসন্দেহে স্কুল-কলেজ বন্ধ করার পথে এগোবে প্রশাসন। সেক্ষেত্রে মাধ্যমিক এবং উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার মূল্যায়ন নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নিল পর্ষদ। আপাতত টেস্ট পরীক্ষার উপর জোর দিচ্ছে পর্ষদ।

আগামী বছর যদি কোনো কারণে মাধ্যমিক এবং উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা নেওয়া সম্ভব না হয় তাহলে টেস্টে পাওয়া নম্বরের ভিত্তিতে ছাত্র-ছাত্রীদের বিকল্প মূল্যায়নের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। চলতি সপ্তাহে মাধ্যমিকের টেস্টের সূচি প্রকাশ করবে মধ্যশিক্ষা পর্ষদ। উচ্চমাধ্যমিকের ক্ষেত্রে স্কুলগুলি তাদের নিজেদের সুবিধামতো ডিসেম্বর জানুয়ারি মাসের দিকে টেস্ট নেবে বলে জানানো হয়েছে।

করোনার কারণে সিবিএসই এবং সিআইএসই এর মত সর্বভারতীয় বোর্ড আগে থেকে দশম এবং দ্বাদশ শ্রেণীর চূড়ান্ত পরীক্ষা দুই ধাপে করানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আইসিএসই এবং আইএসসির পরীক্ষা ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গিয়েছে। কেন্দ্রীয় বোর্ড সিবিএসই এর দশম শ্রেণীর প্রথম ধাপের পরীক্ষা শুরু হবে মঙ্গলবার এবং দ্বাদশ শ্রেণীর পরীক্ষা হচ্ছে বুধবার।

আগামী বছরের 7 থেকে 16 মার্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা হবে। 2 রা এপ্রিল থেকে উচ্চমাধ্যমিক শুরু হবে। উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা শেষ হবে 20শে এপ্রিল। উচ্চমাধ্যমিকের প্রাকটিক্যাল পরীক্ষা 15 ফেব্রুয়ারি থেকে 4ঠা মার্চ পর্যন্ত চলবে। তবে নিতান্তই করোনার কারণে যদি পরীক্ষা নেয়া সম্ভব না হয় তাহলে টেস্ট পরীক্ষা থেকে প্রাপ্ত নম্বরের ভিত্তিতে নম্বর দেওয়া হবে।