মুখ্যমন্ত্রীর ঠিকানায় “জয় শ্রীরাম” লেখা প্রায় এক লক্ষ চিঠি পাঠাবে বিজেপি

4
মুখ্যমন্ত্রীর ঠিকানায়

“জয় শ্রীরাম” স্লোগান নিয়ে উত্তাল রাজ্য রাজনীতি। গতকাল নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর ১২৫ তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়ালে আয়োজিত অনুষ্ঠানে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে উদ্দেশ্য করে “জয় শ্রীরাম” স্লোগান দেন বিজেপি সমর্থকরা। সরকারি সভায় এভাবে ধর্মীয় স্লোগান দেওয়ার বিপক্ষে প্রতিবাদ জানিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় নেতাজীর জন্মজয়ন্তী উপলক্ষে ভাষণ না দিয়েই ভাষণ মঞ্চ পরিত্যাগ করেন।

এমন ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে রাজ্য শাসক দল এবং কেন্দ্রীয় শাসক দলের মধ্যে জোর সঙ্ঘাত বেধেছে। উভয় পক্ষই আত্মপক্ষ সমর্থনের প্রচেষ্টায় মরিয়া। এমন একটি পরিস্থিতিতে দিল্লির BJP মুখপাত্র তেজিন্দর সিং বাগ্গার নেতৃত্বে বিজেপি শিবির এবার এক অভিনব উদ্যোগ গ্রহণ করলো। “জয় শ্রীরাম” লেখা প্রায় এক লক্ষ চিঠি তৃণমূল সুপ্রিমোর ঠিকানায় পাঠানোর উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে।

এই এক লক্ষ পোস্টকার্ডে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নাম এবং নবান্ন বা কালীঘাটে মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ির ঠিকানা লিখে তা বিজেপি সমর্থকদের হাতে তুলে দেওয়া হবে। সেই চিঠি গুলিতে জয় শ্রীরাম এবং নিজেদের নাম লিখে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ঠিকানায় পাঠিয়ে দেবেন সাধারণ মানুষ, এমনটাই জানালেন দিল্লির BJP মুখপাত্র তেজিন্দর সিং বাগ্গার। এমনটা করার কারণ, মুখ্যমন্ত্রীর “জয় শ্রীরাম” স্লোগানের প্রতি বিরূপ মনোভাব!

দিল্লির BJP মুখপাত্র তেজিন্দর সিং বাগ্গার বলেছেন, “জয় শ্রীরাম স্লোগান শুনলেই মুখ্যমন্ত্রী বিরক্ত হন। অন্য ধর্ম সম্প্রদায়ের জন্য দূর্গা পূজার বিসর্জন বন্ধ করে দেন তিনি। ভিন ধর্ম-সম্প্রদায়ের তোষণ করতে গিয়ে তিনি বারংবার হিন্দু মনোভাবে আঘাত হেনে চলেছেন!” গতকালের ঘটনা প্রসঙ্গে তার বক্তব্য, “বিজেপি সমর্থকরা নন, সাধারণ মানুষ উৎসাহিত হয়েই স্লোগান দিয়েছিলেন। মুখ্যমন্ত্রী ভাষণ বয়কট করে কার্যত নেতাজী সুভাষচন্দ্র বসুকেই অপমান করেছেন।”