কেরালার পৌরসভা নির্বাচনে এবার দুই মুসলিম মহিলা প্রাথীর নাম ঘোষণা করলো বিজেপি

14
কেরালার পৌরসভা নির্বাচনে এবার দুই মুসলিম মহিলা প্রাথীর নাম ঘোষণা করলো বিজেপি

বিজেপি কেরলে এবার ইতিহাস গড়লো। কেরালা এবার নির্বাচনের প্রার্থী হিসাবে বিজেপির তরফ থেকে দেওয়া হলো দুই মুসলিম মহিলার নাম। পৌরসভার নির্বাচনের জন্য প্রার্থী হিসেবে দুই মুসলিম মহিলাকে, যেটা সত্যি কারের একটি ইতিহাস গড়লো কেরালাতে।

মল্লপুরের জেলায় অনেক মুসলিম পুরুষ প্রার্থী বিজেপির লড়াই করেছেন কিন্তু এইবার প্রথম এরকম হলো যেখানে, বিজেপির প্রার্থী হতে চলেছে দুই জন মুসলিম মহিলা। মল্লপুরের জেলার ইন্ডিয়ান ইউনিয়ন মুসলিম লীগ শক্তিশালী এবং এই শক্তিকে কিছুটা হলেও কমানোর জন্য বুদ্ধি খাটিয়ে এবার মুসলিম লীগের বিপরীতে সংখ্যালঘুদের এই প্রার্থী হিসেবে বেছে নিলেন বিজেপির দল।

প্রথম বিজেপি মুসলিম মহিলা প্রার্থী সুলফথ লড়বেন ওয়ান্দুর গ্রাম পঞ্চায়েতের অধীনে থাকা ৬ নম্বর ওয়ার্ডের দ্বিতীয় বিজেপি মুসলিম মহিলা আয়েশা হোসেন যিনি অন্য একটি গ্রাম পঞ্চায়েতের অধীনে থাকা ৯ নম্বর ওয়ার্ডের হয়ে লড়বেন।

বিজেপি দলের এই সিদ্ধাতে হয়তো মুসলিম মহিলাদের ভাগ্য এরপর পরিবর্তন হতে চলেছে। আয়েশার থেকে জানা যায় যে, আয়েশার স্বামীও বিজেপিতে যোগদান করেছেন এবং যার জন্যই তিনিও বিজেপিতে যোগ দিচ্ছেন।

সুলফথ বলেন যে, যখন কেন্দ্রীয় সরকার তালাক নিষিদ্ধ করেন এবং মেয়েদের বয়স বিয়ের জন্য ১৮ থেকে ২১ করেন সেই সময়ে তিনি এই সরকারের প্রতি মুগ্ধ হয়েছিলেন। সুলফথ বলেন যে, তার বিয়ে হয়েছিল মাত্র ১৫ বছর বয়সে এবং সে দুই সন্তানের মা হয়েছিলেন তার কথায় বোঝা গেছে যে, এই ধরনের সাহস একমাত্র তিনি কেন্দ্রীয় সরকারের মাধ্যমেই পেয়েছেন।

সুলফথ থেকে জানা গেছে যে, তার স্বপ্ন ছিল পড়াশুনা করে সে একটি চাকরি করবে। কিন্তু অবশেষে তার বিয়ে হয়ে যায়। সে দশম শ্রেণী পর্যন্ত পড়তে পেরেছেন, তবে হয়তো এবার সুলফথের জন্য অনেক মেয়েদের স্বপ্ন পূরণ হতে চলেছে বলেই মনে করা হচ্ছে। এখন তিনি তার স্বামীর যে সমস্ত ব্যবসা রয়েছে সেগুলো দেখাশোনা করেন।