বিবাহ বার্ষিকীর সবচেয়ে বড় উপহার! নিজের কিডনি স্বামীকে দান করলেন এক মহিলা

6
বিবাহ বার্ষিকীর সবচেয়ে বড় উপহার! নিজের কিডনি স্বামীকে দান করলেন এক মহিলা

বিবাহবার্ষিকীতে আমরা স্বামী স্ত্রীকে দেওয়া বিভিন্ন উপহারের কথা জানি। সাধ্যমত প্রত্যেক স্বামী চেষ্টা করেন তার স্ত্রীকে বিবাহ বার্ষিকীতে কিছু না কিছু উপহার দেবার। জামা কাপড় থেকে শুরু করে হীরের আংটি কোন কিছুই বাদ যায় না এই উপহারের তালিকা থেকে। স্ত্রীরাও সাধ্যমত চেষ্টা করেন তার স্বামীকে খুশি করতে।

একজন স্ত্রীর কাছে তার স্বামীর থেকে বড় আর কেউ হয়না। স্ত্রীরা স্বামীর কল্যাণের জন্য অনেক কাজ করে থাকেন। এমনই একজন স্ত্রী হলেন প্রভা। স্বামীকে আরো বহু বছর নিজের কাছে বেঁধে রাখার জন্য বিয়ে ১৭ বছর বিবাহবার্ষিকীতে নিজের কিডনি স্বামীকে দিয়ে দিলেন উপহার হিসেবে।

গত এক বছর ধরে কিডনি সমস্যায় ভুগছিলেন রবি দত্ত সোনি। নিয়মিত ডায়ালাইসিস করাচ্ছিলেন। কিন্তু দুদিন আগে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটে। শারীরিক অবস্থার অবনতি দেখে সিদ্ধান্ত নিতে কালবিলম্ব করেননি প্রভা। দ্রুত চলে আসেন স্বামীকে নিয়ে ইন্দরের বড় হাসপাতালে। সেখানে ডাক্তারের পরামর্শমতো স্বামীকে ভর্তি করালেন হাসপাতালে। এরপর ডাক্তার প্রভাকে জানালেন যে তার স্বামীর কিডনির প্রয়োজন।

এরপরে সিদ্ধান্তটা নিতে বোধহয় এক সেকেন্ডও দেরি হয়নি প্রভার। সঙ্গে সঙ্গে জানিয়ে দেন ডাক্তারকে, তিনি দেবেন তার স্বামীকে কিডনি। শুরু হলো প্রভার চেকআপ। সবকিছু মিলে যাওয়ার পর শুরু হয়ে গেল অপারেশন। অপারেশন হওয়ার পর খুশিমনে প্রভা ডাক্তারকে জানালেন তাদের বিবাহ বার্ষিকীর কথা। রবি ও হাসিমুখে ডাক্তারকে জানালেন,”আমি সত্যিই গর্বিত এমন স্ত্রী পেয়ে। বউয়ের থেকে সেরা উপহার পেয়ে গেলাম”। রবি এবং ওরা দুজনেই এখন সুস্থ রয়েছেন। এইভাবে আরও বহু বছর তারা একসাথে জীবন কাটানোর এই শুভেচ্ছা জানিয়েছেন সমস্ত কর্মীরা।