ফ্রান্সে এবার গির্জার ভিতরে সন্ত্রাসবাদী হামলা চালালো দুষ্কৃতীরা, আততায়ীকে আটক করেছে পুলিশ

5
ফ্রান্সে এবার গির্জার ভিতরে সন্ত্রাসবাদী হামলা চালালো দুষ্কৃতীরা, আততায়ীকে আটক করেছে পুলিশ

একের পর এক বর্বরোচিত হামলার ঘটনা ঘটছে ফ্রান্সে। চলতি অক্টোবর মাসের মাঝামাঝি সময়ে মৌলবাদী মনোভাবের শিকার হতে হয়েছে ফ্রান্সের এক শিক্ষককে। এবার ফ্রান্সের নিসে অবস্থিত একটি গির্জায় আততায়ী হামলার কবলে পড়লেন তিনজন। সূত্রের খবর, এদিন গির্জার মধ্যেই এক মহিলার মাথা কেটে খুন করে এক দুষ্কৃতী। ওই মহিলার পাশাপাশি আরো দুই জনকে হত্যা করা হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে।

নিসের মেয়র ক্রিশ্চিয়ান এসট্রোসি এ খবরের সত্যতা সম্পর্কে নিশ্চিত করেছেন। সম্প্রতি একটি টুইট বার্তায় তিনি জানিয়েছেন, নিসের বিখ্যাত ও ঐতিহ্যমণ্ডিত নোত্র দাম গির্জার ভিতরে সন্ত্রাসবাদী হামলা চালিয়েছে দুষ্কৃতীরা। পরপর তিন জনকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করা হয়েছে। এমনকি এক মহিলাকে মাথা কেটে খুন করা হয়েছে বলেও জানা গেছে। ওই আততায়ীকে আটক করেছে পুলিশ।

তিনি আরো জানিয়েছেন, নিহতদের মধ্যে একজন ওই গির্জারই ওয়ার্ডেন ছিলেন। বিশিষ্ট সংবাদসংস্থা রয়টার্স এর রিপোর্ট থেকে জানা গেল, মৃত ব্যক্তি হামলা চালানোর সময় “আল্লাহু আকবার” স্লোগান দিচ্ছিল। এমনকি গ্রেফতারির পরেও সে “আল্লাহু আকবার” স্লোগান দিচ্ছিল। তবে গ্রেফতারির পূর্বে তাকে গুলি করতে বাধ্য হয় পুলিশ। বর্তমানে সে হাসপাতালে আছে।

ফ্রান্সে পরপর এরকম বিদ্বেষমূলক হামলার ঘটনা ঘটায় ঘুম উড়েছে প্রশাসনের। মেয়র এসট্রোসি জানিয়েছেন, এবার ফ্রান্সের মাটি থেকে ইসলামী ফ্যাসিবাদের নীতি নির্মূল করতে বদ্ধপরিকর ফ্রান্স। প্রয়োজনে শান্তির পথ থেকে বেরিয়ে আসলেও দ্বিধা করবে না ফ্রান্স। তিনি আরো বলেছেন, ফ্রান্সের শিক্ষক নিধনের সঙ্গে যারা জড়িত ছিল, তারাই এমন ঘটনা ঘটিয়েছে।