অবাধে ঘুরে বেড়াচ্ছে ভয়ানক প্রাণীরা, খাঁচা বন্দী মানুষ

18
অবাধে ঘুরে বেড়াচ্ছে ভয়ানক প্রাণীরা, খাঁচা বন্দী মানুষ

গোটা বিশ্বে এমন অনেক জিনিস আছে যেগুলো আর পাঁচটা সাধারণ জিনিসের থেকে একেবারেই আলাদা। কিছু জিনিস খুব অদ্ভুত এবং হাস্যকর প্রকৃতির হয়, কিছুবা ভয়ানকও হয়ে থাকে। তবে মানুষ সব রকম অভিজ্ঞতার সাথে নিজের পরিচয় ঘটাতে চায়। আবার পৃথিবীতে আছে এমন অনেক মানুষ, যারা জীবনে দুঃসাহসিক সব কর্ম ঘটাতে ওস্তাদ। আজকের প্রতিবেদনের বিষয়টি এই সংক্রান্ত।

পৃথিবীর প্রায় সর্বত্রই কমবেশি চিড়িয়াখানা রয়েছে, আর মানুষ চিড়িয়াখানায় ঘুরতে যেতে ভালোই বাসেন। আর সাধারণত চিড়িয়াখানায় প্রাণীরা খাঁচায় বন্দি থাকে, মানুষেরা এদিক ওদিক ঘুরে ফিরে তাদের দেখতে থাকে।

তবে আজকের প্রতিবেদনে এমন একটি চিড়িয়াখানার কথা বলব যেখানে গেলে আপনাদের চোখে ব্যতিক্রমী দৃশ্য ধরা পড়বে। চীন দেশে Leh Ledu World Life Syangchuyari নামক একটি জনপ্রিয় চিড়িয়াখানায় বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মানুষ আসেন। আর এখানে আসার উদ্দেশ্যই হল এক মজাদার এবং ভয়ানক অভিজ্ঞতার সম্মুখীন হওয়া।

আসলে এই চিড়িয়াখানায় যারা আসেন তারা খাঁচার মধ্যে বন্দি থাকেন। আর বন্য ভয়ানক প্রাণীরা অবাধে ঘুরে বেড়ায়। চিড়িয়াখানাটি নতুন বললেই চলে। ২০১৫ সালে এটি খোলা হয়। তবে এই চিড়িয়াখানায় বাঘ সিংহ সহ অন্যান্য হিংস্র সব প্রাণীও রয়েছে। পর্যটকরা খাঁচার ভেতরে থেকে খাঁচার ছোট জানলা দিয়ে সেই সব পশুপাখিদের খেতে দেয়। আর ভয়ানক সব প্রাণীগুলিকে শিকারের লোভে খাঁচার আশেপাশে ঘুরতেও দেখা যায়। তবে সেখানকার নিরাপত্তা ব্যবস্থা খুবই কড়া। যাতে কোন মানুষের কোনো বিপদ না হয় সেই বিষয়ে তারা সর্বদা সতর্ক থাকেন। কোনো অন্যরকম কিছু হতে দেখলেই তারা এক মুহুর্ত সময় নষ্ট না করে যত শীঘ্র সম্ভব ঘটনাস্থলে পৌঁছে যায়।