৫০ মিটারের মধ্যে শিক্ষিকা বদলি নিয়ে উত্তাল শিক্ষক মহল

9
৫০ মিটারের মধ্যে শিক্ষিকা বদলি নিয়ে উত্তাল শিক্ষক মহল

শিক্ষক-শিক্ষিকাদের বদলি নিয়ে জট যেনো কাটতে চাইছে না, এই নিয়ে বিতর্ক হয়েই চলেছে। কিছুদিন আগে শোনা গিয়েছিল বীরভূমের এক শিক্ষিকাকে ৫০ মিটার এর মধ্যে বদলি করা হয়েছিল। জানিয়ে উঠেছিল অভিযোগ। গত অনেক কয়েক বছর থেকেই শিক্ষক বদলি প্রক্রিয়া বন্ধ ছিল। কিন্তু হঠাৎ করেই ফের চালু হওয়ায় উপচে পড়েছে বিতর্ক। কিছুদিন আগেই মেয়েদের স্কুলে পুরুষ শিক্ষক বদলি, এই নিয়ে বেশ জলঘোলা হয়েছিল। এবার সম্প্রতি বীরভূমের এক শিক্ষিকাকে ৫০ মিটারের মধ্যে বদলি করা হয়েছিল, জানিয়ে উঠেছে অভিযোগ। সবার একটাই দাবী এই বদলি নিয়মবহির্ভূত। যে শিক্ষিকাকে এই ৫০ মিটারের মধ্যে বদলি করা হয়েছে, সেখানে দেখা যাচ্ছে বীরভূমের ব্রাহ্মণ খণ্ড বাসাপাড়া হাই স্কুল থেকে বাসাপাড়া জুনিয়ার গার্লস হাই স্কুলে বদলি করা হয়েছে।

মোটকথা অভিযোগ এটাই এক স্কুল থেকে আরেক স্কুলের দূরত্ব ৫০ মিটার, গুগল ম্যাপে এটাই দেখাচ্ছে। এক মিনিটের হাঁটা পথ, তাই এই বদলিকে শিক্ষক শিক্ষা কর্মী ও শিক্ষানুরাগী ঐক্য মঞ্চের সাধারণ সম্পাদক কিংকর অধিকারী জানিয়েছেন, এই বদলি একেবারেই নিয়মবহির্ভূত। বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ নিয়েও তিনি অভিযোগ করেছেন, তিনি বলেন বিজ্ঞপ্তিতে লেখা রয়েছে শিক্ষক শিক্ষিকা সাধারণ বদলি করা হচ্ছে কিন্তু বদলি শুরু হওয়া নিয়ে কোন বার্তা দেওয়া নেই।

কিন্তু শিক্ষক মহলের প্রশ্ন এটাই, সাধারণ বদলি হোক বা বিশেষ, কখনোই দুই স্কুল এর মধ্যে দূরত্ব এত কম হতে পারে না। এই বদলি নিয়ে যখন সবাই সরব হয়েছেন এমনকি সোশ্যাল মিডিয়া লেখালেখি পর্যন্ত করেছেন, তখন সেই শিক্ষিকা জানিয়েছেন তিনি বদলির কোনো আবেদন করেননি। তবে শুধু তার সাথেই নয় আরো অনেক শিক্ষক শিক্ষিকার সাথে এমন ঘটনা ঘটেছে। কিন্তু তিনি এই বদলি করাতে চান তাই অন্য শিক্ষকদের কাছ থেকে কি করনীয় সেটা জানতে চেয়েছেন।