দেখে নিন মহিলাদের সুরক্ষার্থে কেন্দ্রের চালু করা পাঁচটি প্রকল্প

16
দেখে নিন মহিলাদের সুরক্ষার্থে কেন্দ্রের চালু করা পাঁচটি প্রকল্প

মহিলাদের অগ্রগতির জন্য কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে চালু হয়েছে পাঁচটি প্রধান দীর্ঘমেয়াদী যোজনা। এদের মধ্যে অন্যতম হলো ভারত সরকারের “বেটি বাঁচাও বেটি পড়াও” প্রকল্প। যে প্রকল্প লিঙ্গ জনিত কারণে গর্ভস্থ ভ্রূণের হত্যা প্রতিরোধ করে এবং তার সাথে শিশুকন্যা নিরাপত্তা এবং শিক্ষার অধিকারকে নিশ্চিত করে। ২০১৫ সালের ২২শে জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী মহিলাদের সুরক্ষার্থে এই প্রকল্পের কথা ঘোষণা করেন।

ভারত সরকারের “বেটি বাঁচাও বেটি পড়াও” প্রকল্পের অন্তর্গত অপর একটি যোজনা হলো “সুকন্যা সমৃদ্ধি যোজনা”। এই যোজনার ফলে ১৮ বছর বয়সি কন্যা সন্তান উচ্চশিক্ষার জন্য একাউন্ট থেকে টাকা তুলতে পারবেন। কন্যা সন্তানের নামে তাদের অভিভাবকেরা জয়েন্ট একাউন্টে এই যোজনায় টাকা রাখতে পারেন। ২৫০ টাকা থেকে শুরু করে সর্বাধিক দেড় লক্ষ টাকা পর্যন্ত রাখা যেতে পারে এই একাউন্টে। বর্তমানে সুদের হার ৭.৬ শতাংশ।

এরপর রয়েছে “বালিকা সমৃদ্ধি যোজনা”। এই যোজনার আওতায় দারিদ্র সীমার নিচে বসবাসকারী পরিবারের মেয়েরা স্কলারশিপ পেয়ে থাকেন। এই প্রকল্পের আওতায় গ্রাম এবং শহরে কন্যা সন্তানের জন্মের পরেই ৫০০ টাকা দেওয়া হয়। এরপর প্রাথমিক শিক্ষা লাভের জন্য প্রথম থেকে তৃতীয় শ্রেণীতে বছরে ৩০০ টাকা, চতুর্থ শ্রেণীতে ৪০০ টাকা, পঞ্চম শ্রেণীতে ৬০০ টাকা, ষষ্ঠ ও সপ্তম শ্রেণীতে ৭০০ টাকা, অষ্টম শ্রেণীতে ৮০০ টাকা এবং নবম ও দশম শ্রেণীর জন্য ১০০০ টাকা করে দেওয়া হয়।

“সিবিএসসি উড়ান” প্রকল্পের উদ্দেশ্য হলো ভারতীয় মহিলাদের ইঞ্জিনিয়ারিং এবং কারিগরি শিক্ষার প্রতি আগ্রহী করে তোলা। এই প্রকল্পের আওতায় সমাজের পিছিয়ে পড়া সম্প্রদায় মহিলাদের বছরে ১০০০ টাকা করে দেওয়া হয়। এছাড়াও মাধ্যমিক স্তর পর্যন্ত মহিলাদের শিক্ষা সুনিশ্চিত করার উদ্দেশ্যে ভারত সরকারের তরফে বিভিন্ন ইন্সেন্টিভ প্রকল্পও গ্রহণ করা হয়েছে।