মানসিক সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে দেখে নিন চাণক্যের কিছু উক্তি

14
মানসিক সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে দেখে নিন চাণক্যের কিছু উক্তি

আমরা সকলেই জানি যে অর্থনীতিবীদ চাণক্য অর্থশাস্ত্র রচনা করেছিলেন। পরবর্তীকালে চাণক্য কৌটিল্য নামে পরিচিত হয়েছিলেন। তার মত মহান পন্ডিত খুব কমই ছিল আমাদের ভারতবর্ষে। তার দূরদর্শিতা এখনো পর্যন্ত মানুষের কাছে গ্রহণযোগ্য। জীবনকে সফল করে তুলতে আমরা যদি চাণক্যের নীতি মেনে চলতে পারি, তাহলে অদূর ভবিষ্যতে আমরা পাব সঠিক দিশা।

মানসিক যন্ত্রণা থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য মায়া ত্যাগ করা খুবই জরুরী: চাণক্যের মত অনুযায়ী আমরা যারা মনুষ্যজাতি, তারা গভীরভাবে যুক্ত সাংসারিক মানুষদের সাথে। আত্মীয় স্বজন পরিবারের মায়া ত্যাগ করা খুব কঠিন ব্যাপার। যতই আমরা পুঁথিগত বিদ্যা অর্জন করি না কেন, যথাযথভাবে কর্তব্য পালন করলেও সম্পর্কে মোহ মায়া ত্যাগ করা খুব কঠিন হয়ে যায়। তাই চাণক্য বলেছেন যে, যতই কষ্ট হোক না মৃত্যুর পরে যদি কষ্ট না পেতে চান, তাহলে এখন থেকেই মায়া সচেতনভাবে ত্যাগ করা প্রয়োজন। মায়া ত্যাগ না করতে পারলে কখনোই জীবনে সাফল্য অর্জন করতে পারবেন না।

জ্ঞানী লোকের পরিচয়: উত্তরাধিকার সূত্রে সম্পত্তির অধিকার পাওয়া খুবই সহজ ব্যাপার, কিন্তু শুধুমাত্র ব্যক্তি যিনি যোগ্য, তার হাতেই সম্পত্তির দায়ভার তুলে দেওয়া প্রয়োজন। আচার্য চানক্য বলেছেন যে, সমুদ্রের জল পরবর্তীকালে মেঘে পরিণত হয়।আমরা সকলেই জানি যে মেঘ থেকে বৃষ্টি উৎপন্ন হয়। তারপর সেই বৃষ্টি সর্বত্র ছড়িয়ে যায়। আবার সেই জল ফিরে আসে সমুদ্রে।তাই সম্প্রতি এমন করে মানুষকে দেওয়া উচিত, যে সঠিকভাবে তা পরিচালনা করতে পারবে।

অর্থ সাশ্রয় করার কৌশল: আচার্য চানক্য বলেছেন যে, অর্থ সঞ্চয় সবাই করতে পারে না। এটি আসলে একটি শিল্প। যে ব্যক্তি এই শিল্প সুনিপুণভাবে শিখতে পারে, তার জীবন সুখ এবং শান্তিতে ভরে থাকে। যে ব্যক্তি প্রকৃত জ্ঞানী, তিনি অসময়ের জন্য অর্থ সঞ্চয় করতে পারেন। প্রয়োজনের অতিরিক্ত ব্যয় করা তিনি পছন্দ করবেন না। আয়ের থেকে যিনি ব্যয় বেশি করেন, তিনি কখনোই ভবিষ্যতে সফলতা পান না।

কৌটিল্যের মতে, বিপদের সময় একমাত্র অর্থ আপনাকে বাঁচাতে পারে। তাই ভবিষ্যতের কথা এখন থেকেই মাথায় রেখে অর্থ সঞ্চয় করা আমাদের প্রয়োজন। এছাড়াও আমাদের ভবিষ্যতের জন্য অর্থাৎ আমাদের সন্তানের জন্য অর্থ সঞ্চয় করা প্রয়োজন। ঠিক ততটুকুই অর্থ ব্যয় করা প্রয়োজন যতটুকু আমাদের দরকার। অর্থের অপব্যবহার করা একেবারেই উচিত নয়।