অবাক লাগলেও সত্যি! মেনুতে নেই পাঁঠার মাংস বিয়ে ভেঙে দিল বর

14
অবাক লাগলেও সত্যি! মেনুতে নেই পাঁঠার মাংস বিয়ে ভেঙে দিল বর

মেনুতে নেই পাঁঠার মাংস; তাই বিয়ে ভেঙে দিল বর। পাঁঠার মাংস না পেয়ে বিয়েবাড়ি ছেড়েই চলে গেল বর। একেবারে বিয়ে করে বসল অন্য মেয়েকে।

শুনতে অবাক লাগলেও এই ঘটনা সত্য। বিয়ের দিন মেনুতে মটন নেই দেখেই রেগে আগুন হয়ে যায় বর। সোজা বিয়েবাড়ি থেকে রওনা দেয় বাড়ির পথে। তবে বাড়ি ফেরার পথে অন্য মেয়েকে বিয়ে করে বাড়ি ফেরে সে। জানা গিয়েছে, ২৭ বছর বয়সী ওই বরের নাম রমাকান্ত পাত্র।

ওড়িশার কেওনঝড় জেলায় রমাকান্তের বাড়ি। বুধবার বিকেলে সে পাশের জেলার বাঁধাগাঁওয়ে বিয়ে করতে যায়। সেখানে প্রথম দিকে সবটা ঠিকঠাকই চলছিল। কনের পরিবারের পক্ষ থেকে বরকে স্বাগত জানানো হয়। এরপর মধ্যাহ্নভোজনে নিয়ে যাওয়া হয় বরপক্ষকে।

কিন্তু খাওয়ার সময়েই বাঁধল গোল। মেনুতে নেই মটন। আর তাই নিয়েই পরিবেশন কারীদের সঙ্গে প্রথমে শুরু হয় তর্ক। পরিস্থিতি মুহূর্তে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। পুরো ব্যাপারটাই হাতের বাইরে চলে যায়। পাত্র যখন জানতে পারেন, মেনুতে মটন নেই, তখন সবাইকে অবাক করে সরাসরি বিয়েতে বেঁকে বসেন তিনি।

বর ও বরপক্ষ কনের পরিবারের হাজার কাকুতি মিনতিও কানে তোলেনি। বরের মতবদলের জন্য সবরকম চেষ্টা করে কনেপক্ষ। তবে তাদের সেসব কথায় কর্ণপাত না করে বর আত্মীয়স্বজন নিয়ে বিয়েবাড়ি ছেড়ে চলে যায়। পাশের গ্রামেই তাঁদের এক আত্মীয়বাড়ি থাকায়, সেখানেই বাকি দিন কাটায় বরপক্ষ।

রমাকান্ত কেওনঝড়ে ফিরে আসার আগে ওই রাতেই আরেক মহিলাকে বিয়ে করেন। যদিও কনের পরিবার এই ব্যাপারে থানায় অভিযোগ দায়ের করেনি।