দেশের মধ্যে দ্বিতীয় স্থান দখল করলো বাঙ্গালির সুরা প্রেম

15
Sura Prem of Bengali took the second place in the country

বাংলার মানুষের যে মদের উপর কতটা অমোঘ আকর্ষণ রয়েছে, লকডাউনে তা বেশ ভালোমতোই টের পাওয়া গিয়েছে। লকডাউনের আশঙ্কায় মদের দোকানের সামনে লম্বা লাইন লাগিয়েছিলেন সুরা প্রেমীরা। শুধু কি তাই? লকডাউনের মাঝে মদ না পেয়ে অ্যালকোহলযুক্ত বিষাক্ত স্যানিটাইজার পান করেও প্রাণ হারিয়েছেন কত শত মানুষ! ফের লকডাউন উঠতেই মদের দোকানের সামনে ভিড় জমিয়েছেন হাজার হাজার মানুষ।

বাঙালির এই সুরাপ্রেমও বাংলাকে সেরার সেরা করে তুলেছে। সাম্প্রতিক একটি সমীক্ষার রিপোর্ট বলছে এই বাংলা মদ্যপানের নিরিখে সারা দেশের মধ্যে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে। প্রথম স্থান দখল করে নিয়েছে উত্তর প্রদেশ। এই বাংলায় দৈনিক গড়ে প্রায় ১ কোটি ৪০ লক্ষ মানুষ সুরা পান করে থাকেন। এতে অবশ্য বেশ মোটা অংকের রাজস্ব আদায় করে সরকার।

মদ এ রাজ্যে শীর্ষ তিনটি কর বাবদ আদায়ের অন্যতম বলে বিবেচিত হয়। সম্প্রতি মদের দামের মডেল পরিবর্তিত হয়েছে। যার ফলে মদের দাম পরিবর্তন করা হয়েছে। ইন্ডিয়ান মেড ফরেন লিকারের দাম বেড়ে যাওয়াতে বিদেশী মদের প্রতি মানুষের আগ্রহ কিছুটা কমেছিল। বদলে দেশির প্রতি ঝুঁকেছেন মানুষ।

উল্লেখ্য, লকডাউনের আগে মুখে মাস্ক পরে, পকেটে স্যানিটাইজার নিয়ে, ভিড়ের মধ্যে গুতাগুতি করে এমনকি পুলিশের লাঠির আঘাত সহ্য করেও মদের প্রতি ভালোবাসা দেখিয়েছেন বাঙালিরা। বাবুঘাট থেকে বাগুইআটি, মানিকতলা থেকে মন্দিরবাজার পর্যন্ত চিত্রটা একইরকম ছিল। মদের দোকানের সামনে ভিড় সামাল দিতে গিয়ে রীতিমতো হিমশিম খেতে হয়েছে পুলিশকে।