ঘাড় ও পিঠের ব্যাথায় ভুগছেন? দেখুন কি করলে দূর হবে এই ব্যাথা

24
ঘাড় ও পিঠের ব্যাথায় ভুগছেন? দেখুন কি করলে দূর হবে এই ব্যাথা

বিশ্বের প্রায় 90 ভাগ মহিলা বয়স কালে কাবু হয়ে যান কোমর ও পিঠের ব্যথায়। অনেক সময় ভারী জিনিস তুললে কোমর ও পিঠের ব্যথা অনুভূত হতে পারে। আবার মানসিক চাপের কারণেও পিঠের যন্ত্রণা হয়। খুব মানসিক চাপ হলে শরীরের পেশী গুলো শক্ত হয়ে যায় ফলে এই ধরনের যন্ত্রণা দেখা দেয়। পেশি যত শক্ত হবে যন্ত্রণা তত বাড়তে থাকবে।

আজকে আমি পিঠের ব্যথা দূর করার জন্য একটি ভ্যান দেখাব যা আপনার পিঠের ব্যথা দূর করার সাথে ভবিষ্যতে যাতে এই ধরনের ব্যথা না হয় তার প্রতিরোধ করবে এই ব্যয়্যামটি।

১. একপা বাঁকিয়ে চিত হয়ে শুয়ে পড়ুন। তারপর আপনার হাত দিয়ে পা সোজা রেখে উপরে তুলুন। এরপর পাটিকে আপনার মাথার দিকে টানুন। আপনি যখন বুঝতে পারবেন আপনার আরাম হচ্ছে ততক্ষণ পর্যন্ত পাটিকে টানুন। এভাবে ৩০ সেকেন্ডের জন্য রাখুন পাটি। অন্য পায়েও একইভাবে এই কাজটি করুন। এই ব্যায়াম টি দুইবার দুইবার অনুশীলন করুন।

কার্যকারিতাঃ এতে আপনার ঊরুর পেশী প্রসারিত হয়ে আপনার পিঠের ব্যথা কমাতে সাহায্য করে। এছাড়াও পিঠের নিম্নভাগের চাপ উপশম করতে এবং ব্যথা কমাতে সহায়তা করে এই আসনটি।

২. প্রথমে মাথা এবং হাত সমান্তরাল ভাবে রেখে চিত হয়ে শুয়ে পড়ুন। এরপর ডান পা উপরে উঠিয়ে ডান পাকে বাম পায়ের উপর টেনে নিন।
এটি অনুশীলনের সময় ধীরে ধীরে আপনার মাথা ডান দিকে ঘুরিয়ে নিন। ৩০ সেকেন্ড ধরে রাখুন। ধীরে ধীরে স্বাভাবিক অবস্থানে ফিরে পরের পা দিয়েও এরূপ করুন।

কার্যকারিতাঃ এই ব্যায়ামের ফলে আপনার পিঠের ব্যথা কম হওয়ার সাথে আপনার কাঁধটিও শক্তিশালী হয়ে উঠবে।

৩. সোজা দাঁড়িয়ে যান।ডান পাটি সামনের দিকে এগিয়ে নিন এবং আপনার ডান হাঁটু বাঁকানোর সময় আপনার বাম পা পিছনে থাকবে। আর শরীরের উপরের অংশ সোজা রাখুন। কয়েক সেকেন্ড এই অবস্থায় থাকার পড় মেঝে ছোঁয়ার জন্য আপনার বাম হাঁটু আস্তে আস্তে নামান। শরীরের উপরের অংশ সোজা রাখা অবস্থায় সামনের দিকে প্রসারিত হন। এরপর বাঁ হাত দিয়ে বাঁ পায়ের গোড়ালি উপরের দিকে টানতে থাকুন। ৩০ সেকেন্ড এইভাবে ধরে রাখুন। এইভাবে আপনি অন্য পাশেও করুন। এই ব্যয়ামটি দুইবার অনুশীলন করুন।

আপনিও যদি পিঠের বা কোমরের ব্যথায় আক্রান্ত হন তাহলে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব উপরের ব্যয়ামগুলো অনুসরণ করুন এবং এই ব্যথা থেকে চিরতরে মুক্তি পান।