হঠাৎ বাঘ মামাকে দেখে আতঙ্কে চমকে উঠেছেন শহরবাসী

7
হঠাৎ বাঘ মামাকে দেখে আতঙ্কে চমকে উঠেছেন শহরবাসী

এ তো আর ক্যানিং, গোসাবা বা সুন্দরবন নয় যে সেখানকার গ্রামের রাস্তায় আচমকাই দেখা মিলবে রয়্যাল বেঙ্গল টাইগারের! এ হল মেক্সিকোর রাস্তা। আর সেখানকার রাস্তাতেই দুলকি চালে হেঁটে চলে ঘুরে বেড়াতে দেখা গেল একটি রয়্যাল বেঙ্গল টাইগার। হ্যাঁ, ঠিকই শুনেছেন। আর শুধু হেঁটে চলে ঘুরে বেড়ানো নয়, কখনও কারুর বাড়িতে সে উঁকি দিচ্ছে, কখনও বা গাছের ছায়ায় একটু জিরিয়ে নিচ্ছে। এমনই এক বিরল ঘটনা সম্প্রতি ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

গত মঙ্গলবার নেট দুনিয়ায় ছড়িয়ে পড়া একটি ভিডিওতে দেখা গেছে মেক্সিকোর নয়ারিত রাজ্যের টেকুয়ালা শহরের একটি ফুটপাথে হেঁটে বেড়াচ্ছে একটি রয়্যাল বেঙ্গল টাইগার। তবে শহরের রাস্তায় বাঘ! হঠাৎ বাঘ মামাকে দেখে শহরবাসী আতঙ্কে চমকে উঠেছেন। এই দৃশ্যটিকে বেশ খানিকটা দূর থেকে ক্যামেরা বন্দি করেছেন এক মহিলা। এমনকি সেই ভিডিওতে একজনকে এ কথাও বলতে শোনা যাচ্ছে যে বাঘের সামনে গিয়ে ছবি তোলা অত্যন্ত বিপজ্জনক। ভিডিওটির শেষের দিকে অবশ্য দেখা যাচ্ছে এক ব্যক্তি বাঘের গলায় দড়ি জাতীয় কিছু একটা বেঁধে তাকে নিয়ে উল্টো পথে হেঁটে চলে যাচ্ছেন। কি এই ঘটনা আরও অবাক করছে তো আপনাকে!! বাঘের গলায় দড়ি!

জানেন কি ওখানকার লোকেরা নিজের বাড়িতে বাঘ, সিংহ, জাগুয়ার এবং প্যান্থার ইত্যাদি হিংস্র পশু পুষতে পারেন। এটি আইনগত দিক থেকে স্বীকৃত। এমনকি মেক্সিকোতে কোনো বাড়ির পিছনের উঠোন, ছাদ, গ্যারেজ এবং বেসমেন্টে যদি বাঘ, সিংহ, জাগুয়ার এবং প্যান্থার ঘুরে বেড়াতে দেখেন তাহলে চমকে ওঠার কিছু নেই। তবে সেই দিন বোধ হয় ফুরিয়ে এল। কারণ বাঘ, সিংহ, জাগুয়ার এবং প্যান্থার সহ এই বন্য প্রাণীগুলি পোষার ওপরে মেক্সিকান পার্লামেন্ট আনতে চলেছে কঠোর সব নিয়ম। তাই ভবিষ্যতে এই ধরণের বন্য প্রানী বাড়িতে পুষলে মালিককে মোটা অঙ্কের জরিমানাও দিতে হতে পারে।