সমুদ্রের ৬০০০ মিটার গভীরে মানুষ পাঠিয়ে সফল ভারত!

26
সমুদ্রের ৬০০০ মিটার গভীরে মানুষ পাঠিয়ে সফল ভারত!

ভারত অনেক আগেই চন্দ্রযান, মঙ্গলযান করে সফল হয়েছে। এবার মহাকাশের পর অতল সমুদ্রের প্রকৃতির রহস্য ভেদ করতে নতুন অভিযান হাতে নিল ভারত। লক্ষ্য হল, সমুদ্রের ৬০০০ মিটার গভীরে মানুষ পাঠানো।

তবে, কিছুটা সাবমেরিনের মতো যে যানটিতে করে এই অভিযান হবে, তার নাম রাখা হয়েছে ‘মৎস্য ৬০০০’। এর আগে আমেরিকা, রাশিয়া, জাপান, ফ্রান্স ও চিন এই ধরনের গভীর সমুদ্রাভিযান করেছে।

সেই তালিকায় সফল হলে ভারতও ঢুকে পড়বে। বিজ্ঞানীদের প্রাথমিক পরিকল্পনা অনুযায়ী, তিন জন মানুষ নিয়ে সমুদ্রের গভীরে যাবে মৎস্য ৬০০০। যানটিতে থাকবে অত্যাধুনিক প্রযুক্তির সেন্সর ও যন্ত্রপাতি। থাকবে সমুদ্রতলে খননকার্য চালানোর ব্যবস্থাও। সমুদ্রের গভীরে জলের চাপ বেশি।

সেই চাপ সামলানোও বড় চ্যালেঞ্জ প্রযুক্তিবিদদের কাছে। ১২ ঘণ্টা জলের তলায় থাকতে পারবে যানটি। তবে আপৎকালীন পরিস্থিতিতে ৯৬ ঘণ্টা পর্যন্ত জলের নীচে থাকতে পারবে এই যান।

কেন্দ্রের ভূ-বিজ্ঞান মন্ত্রকের তত্ত্বাবধানে ইসরো, আইআইটি মাদ্রাজ এবং ডিআরডিও-র বিজ্ঞানীরা হাত মিলিয়ে তৈরি করেছেন মৎস্য় ৬০০০-এর নকশা। ২০২০-২১ থেকে ২০২৫-২৬ সালের মধ্যে এই ধরনের গভীর সমুদ্রাভিযান চালানোর জন্য মোট ৪০৭৭ কোটি টাকা।