সুত্রের খবরঃ এবার জঙ্গিদের নিশানায় রাম মন্দির তাই বাড়ানো হল কড়া নিরাপত্তা

5
সুত্রের খবরঃ এবার জঙ্গিদের নিশানায় রাম মন্দির তাই বাড়ানো হল কড়া নিরাপত্তা

সম্প্রতি একটি সংবাদ মাধ্যম সূত্রে পাওয়া খবরে জানা গেছে, এই করোনা পরিস্থিতির মধ্যে যখন সারা বিশ্ব এই পরিস্থিতির মোকাবিলা করতে ব্যাস্ত। তখন পাকিস্তান এই সময়কে, কাজে লাগিয়ে ভারতের বিরুদ্ধে হামলা করার পরিকল্পনা করছে। কারণ এবার সূত্রের মাধ্যমে জানা গেছে অযোধ্যায় যে রাম মন্দির হতে চলেছে সেটা নিয়েই ক্ষোভ জঙ্গী গোষ্ঠী গুলোর মধ্যে। আর সেই জঙ্গী গোষ্ঠী গুলোর প্রধান মাসুদ আজহার তিনি নাকি এই নির্মীয়মাণ রাম মন্দিরকেই নিশানা করেছে। সেই সংবাদ মাধ্যমের দ্বারা আরও জানা গেছে চুপিসারে হামলার ছক কষেছিল মাসুদ আজহার, কিন্তু এখন আর তা কোনোভাবেই গোপন নেই।

এখানেই শেষ না, সূত্রের মাধ্যেম আরও জানা গেছে মাসুদ আজহার, হাফিজ সাঈদ সবাই নাকি এখন নেটওয়ার্ক বৃদ্ধি করার তালে আছে। কারণ দেখা গেছে করোনার কারণে সারা বিশ্ব লক ডাউন, কিন্তু পাকিস্তান যে ব্যাতিক্রম সেটা স্পষ্ট বোঝা যাচ্ছে। আর সেই কারণেই একেবারে অবাধ ভাবে ঘুরে বেড়াতে পারছে সেই জঙ্গী সংগঠনের প্রধানেরা।

আর সেই ঘোরাঘুরিতেই স্পষ্ট উঠে এসেছে যে, নির্মীয়মাণ রামমন্দিরের ওপরেই তাদের নজর, সেই কারণেই এখন আরও সতর্ক ও কড়া নিরাপত্তার বেড়াজালে ঘিরে ফেলা হল রাম মন্দির সহ আরও অনেক কয়েকটি জায়গা। কারণ এটা নতুন কিছুই নয়, পাকিস্তানের জঙ্গীদের সবার প্রথমেই লক্ষ্য দিল্লি, কিংবা মুম্বাই। তাই সেই সব জায়গা গুলোকেও একেবারে নিরাপত্তার মধ্যে রাখা হয়েছে।

সূত্রের মাধ্যেম পাকিস্তানে জঙ্গী গোষ্ঠীর বিভিন্ন কার্যকলাপ সম্পর্কে জানা গেছে, আর সেখানেই দেখা গেছে বড় বড় শহরে জঙ্গী গোষ্ঠীগুলোর মিটিং, সাথে ভারত বিরোধী ভিডিও রিলিজ, যা দেখার পরেই ব্যাপার আরও স্পষ্ট হয়ে উঠেছে। তবে ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম সূত্রে জানা গেছে, এই জঙ্গী কার্যকলাপ নিয়ে ইমরান খান অস্বীকার করলেও, পাক সেনারা এই সব সম্পর্কে অবগত। ভারতের রামমন্দির নির্মাণ যে ভালো মতো নেয় নি, সেটা আর নতুন করে বলার কিছুই নেই। কিন্তু তবুও যদি বলতে হয়, এই মাসুদ আজহার রাম মন্দির নির্মাণকে বেআইনি বলে দাবি করে। আর এই নির্মাণ ঠেকাতে নাকি অনুরাগীরা নিজেদের  জীবন দিতেও প্রস্তুত।