কিছু মানুষকে মশা বেশি কামড়ায়, জানুন কেন এমন হয়

7
কিছু মানুষকে মশা বেশি কামড়ায়, জানুন কেন এমন হয়

মশা কাউকে বেশি কামড়ায় তো কাউকে কম। সম্প্রতি একটি গবেষণা করা হয়েছে এই মশাকে কেন্দ্র করে নিউইয়র্কের রকফেলার বিশ্ববিদ্যালয় স্নায়ুজীববিদ্যার গবেষক লেসলি ভসহলের নেতৃত্বে একটি গবেষনা করা হয়। যেখানে বলা হয়েছে যে কিছু কিছু মানুষের চামড়ায় এমন উপাদান থাকে যেগুলো মশাকে আকৃষ্ট করে ফলে সে সমস্ত মানুষকে সারা জীবনই মশার কামড় খেয়ে যেতে হবে।

এই গোটা বিষয়টি প্রকাশিত হয়েছে মঙ্গলবার বিজ্ঞান পত্রিকা সেলে, এই পরীক্ষাটি করা হয়েছে ৬৪ জনের ওপর এবং গবেষকরা দাবি করে জানিয়েছেন, কয়েকজনকে তারা এডিস ইজিপ্টাই মশার সামনে দাঁড় করিয়ে দিয়েছিলেন সেইখানে দেখা গেছিল যে বেশ কয়েকজনের প্রতি প্রায় ১০০ গুণ বেশি মশা আকৃষ্ট হয়েছে।

এই সমস্ত ব্যক্তিদের গবেষকরা নাম দিয়েছেন মশক চুম্বক। কিন্তু প্রশ্ন এই ধরনের ব্যাপার কেন ঘটেছে? গবেষকদের মতে যাদের বেশি মশা কামড়ায় তাদের ত্বকে এমন কিছু উপাদান থাকে অথবা অ্যাসিড থাকে যা যেগুলিতে মশা আকৃষ্ট হয়।

স্বাভাবিক ত্বকের আদ্রতা বজায় রাখার জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ হয় ওই অ্যাসিড গুলি। বিভিন্ন মানুষের দেহের বিভিন্ন হারে এই উপাদান গুলি থাকে এবং ত্বকে বসবাসকারী যে সমস্ত ব্যাকট্রিয়া গুলি থাকে সেগুলি অ্যাসিড থেকে উৎপাদিত পিচ্ছিল কণাগুলোর ওপর নির্ভর করেই বেঁচে থাকে। মানুষের গায়ের গন্ধটা উপাদানের ওপরেই নির্ভর করে থাকে এবং এই সমস্ত উপাদানগুলির ওপরে মশা আকৃষ্ট হয়।