মহা প্রলয়ের সংকেত! জাপান সুনামিতে ভেসে যাওয়ার চরম হুঁশিয়ারি

33
মহা প্রলয়ের সংকেত! জাপান সুনামিতে ভেসে যাওয়ার চরম হুঁশিয়ারি

এবার এই সারা বিশ্বের করোনার আবহের মধ্যেই জাপানের জন্য এক খারাপ খবর, সেখানে নাকি একটি সরকারী সংস্থার মাধ্যমে জানা গেছে আগামী কিছু দিনের মধ্যেই জাপানে আছড়ে পরতে চলেছে সুনামী ও ভয়ঙ্কর ভূমিকম্প। এই ভূমিকম্পের রিখটার স্কেলে মাত্রা নাকি ৯ এর ওপরে থাকবে। এমন ভাবে এই সুনামী ও ভূমিকম্প সচরাচর দেখা যায় না। কিন্তু এবার জাপানে তারা নাকি আসতে চলেছে দোসর ভাবে।

গড়ে ৩০০-৪০০ বছর পর পর আসে সুনামী –ভূমিকম্প এভাবে। জানা গেছে জাপানের বিভিন্ন এলাকা নাকি এবার ক্ষতির মুখে পরতে চলেছে। বিশেষ করে জাপান খাড়ি, কুরিল খাড়ি, হোক্কাইডো, ফুকুসিমা, ইবারাক, চিবা, আওমারি ও বিভিন্ন জায়গা অনেকটাই ক্ষতিগ্রস্থ হবে, সেখানে নাকি ৩০ মিটার পর্যন্ত সুনামির ঢেউ আছড়ে পরতে পারে, আর সেই কারণেই ক্ষতিগ্রস্ত হবে সেখানে থাকা জনজীবন।

এখানেই শেষ না, এর পরে ভু-কম্পনবিদ কেনজি সাতাকে যা জানিয়েছেন তা শুনে একেবারে সবাই অবাক। গত ৬০০০ বছরের মধ্যে এমন কান্ড অনেকবার ঘটেছে। বিশেষ করে এবারের ভূমিকম্প ও সুনামি একটু বেশীই শক্তিশালী থাকবে। সুনামির কারণে ফুকুসিমা পরমাণু চুল্লি কেন্দ্র একেবারে ধুয়ে মুছে সাফ হয়ে যাওয়ার আশঙ্কাটাই বেশী।

এদিকে ২০১১ সালে আমরা একটি ঘটনার সাথে অবগত। ক্ষতি হয়েছিল ফুকুসিমা দাইচি চুল্লির। জাপানে এমন ধরনের ভূমিকম্প হয়েই থাকে, সেখানকার মানুষ এই সব সম্পর্কে একেবারে অবগত, কিন্তু এবারের ভূমিকম্প নাকি আগের থেকে আরও বেশী শক্তিশালী। তাই অনেকটাই চিন্তার কারণ।

এদিকে জাপান সরকার ইতিমধ্যে তৈরী হয়ে গেছে। তাদের মধ্যে গঠন করা হয়েছে কমিটি। এদিকে চারদিকে সুনামী ও ভূমিকম্পের জন্য দেওয়া হয়েছে বিভিন্ন জায়গায় সতর্কবার্তা। আগের থেকে এখন কি কি প্রস্তুতি নেওয়া যায় সেটাই ক্ষতিয়ে দেখছে জাপান সরকার।