শরীরে রয়েছে ভারী গয়না একদম নব বধু বেশে ফটো শুট করলেন ত্রিনয়নী খ্যাত মিষ্টি নায়িকা শ্রুতি দাস

18
শরীরে রয়েছে ভারী গয়না একদম নব বধু বেশে ফটো শুট করলেন ত্রিনয়নী খ্যাত মিষ্টি নায়িকা শ্রুতি দাস

ত্রিনয়নী খ্যাত মিষ্টি নায়িকা শ্রুতি, যিনি তার তৃতীয় নয়ন শক্তিতে সব কিছু আগে থেকেই দেখতে পেয়ে যেতেন। বহুবার আগে থেকে বিপদ দেখতে পাবার জন্য ঠিক সময়ে বাঁচাতে পেরেছিলেন তার স্বামীকে। পর্দা তে যেমন বারবার নিজের স্বামীকে বাঁচিয়েছিলেন, তেমন সেই পর্দার সেটেই তিনি খুঁজে পেয়েছিলেন তার জীবন সঙ্গীকে। পর্দা তে নরম চরিত্রে অভিনয় করলেও নিজের জীবনে শ্রুতি বেশ দাপটের মহিলা। পরিচালক স্বর্ণেন্দু সমাদ্দারের প্রেমের অভিনয় করার সময় থেকেই তিনি একতরফা হাবুডুবু খেতেন। শেষে বাধ্য হয়ে নিজেই প্রেমের প্রপোজাল দেন তাকে। তার হবু স্বামী তার থেকে প্রায় ১৪ বছরের বড়। এই বিষয়টি নিয়ে অনেকেই সমালোচনা করেছেন। এই বিস্তর বয়সের ফারাক শ্রুতির পরিবার থেকে প্রথমে মেনে নেয়নি।

কিন্তু শ্রুতি তার পরিবারকে জানিয়ে দিয়েছিলেন যে, কম বয়সী কোন ছেলে থাকে হ্যান্ডেল করতে পারবেন না। তার জন্য স্বর্ণেন্দু মত একজন মানুষকে খুব দরকার তার জীবনে। তাদের মন দেওয়া-নেওয়া পর্ব শেষ হবার পর তারা বহু জায়গায় একসঙ্গে ঘুরতে গেছেন। এরপর যখন সম্পর্ক একদম পাকা, ঠিক তখন অভিনেত্রীর দুটি ছবি সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হয়।

একটি ছবিতে অভিনেত্রীকে দেখা যাচ্ছে নব বধু বেশে। শরীরে রয়েছে ভারী গয়না। ফটো অ্যালবামের নাম দেওয়া হয়েছে স্বর্ণ প্রিয়া। বেশ কয়েকটি ছবি শ্রুতি তুলেছিলেন। এমনকি মেক-আপ আর্টিস্টের গালে চুমু পর্যন্ত দিয়েছিলেন। এই চুমু দেওয়া নিয়ে নিয়ে আরো একবার তাকে উপহাস করা হয়েছিল।

অনেকেরই ধারণা হয়েছিল যে, তাহলে হয়তো স্বর্ণেন্দু সঙ্গে আর সম্পর্ক নেই শ্রুতির। এবার হয়তো মেক-আপ আর্টিস্টের প্রেমে মজলেন অভিনেত্রী। অনেকে আবার কমেন্ট করেছিলেন, ওমাগো ট্রু লাভ। অভিনেত্রী র তরফ থেকে সরাসরি কোন কমেন্ট না এলেও শোনা যাচ্ছে যে, যদি এইরকম কোন আপত্তিকর কমেন্ট আসে, তাহলে অভিনেত্রী তার কমেন্ট বক্স অফ করে রাখবেন। সব মানুষেরই ব্যক্তিগত জীবন থাকে। তা নিয়ে উপহাস করার অধিকার থাকে না অন্য কারোর।