সুপার ডান্স ফ্লোর এর বিচারকের আসন থেকে সরে গেলেন শিল্পা শেটি

15
সুপার ডান্স ফ্লোর এর বিচারকের আসন থেকে সরে গেলেন শিল্পা শেটি

বলিউডে আরো একবার ঘটে গেল চমক। বলিউড অভিনেত্রী শিল্পা শেট্টিকে আমরা সকলেই চিনি। শিল্পা শেটির স্বামী এবং ব্যবসায়ী রাজ কুন্দ্রাকে গত সোমবার গভীর রাতে মুম্বাই পুলিশের ক্রাইম ব্রাঞ্চ গ্রেপ্তার করেছেন অশ্লীল ছবি তৈরি করা এবং সেগুলি বিভিন্ন অ্যাপের মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগে। তার পরেই হঠাৎ করে মিডিয়ার সামনে থেকে সরে গেলেন শিল্পা শেট্টি। তাকে দেখা যাচ্ছে না বিখ্যাত রিয়ালিটি শো সুপার ডান্স ফ্লোর এর মঞ্চে।

অনুরাগ বাসু এবং গীতা কাপুর এর সঙ্গে এই রিয়েলিটি শোয়ের বিচারকের আসনে দেখতে পাওয়া যায় শিল্পা শেঠি কে। সোমবার স্বামী গ্রেপ্তারের পর থেকেই তিনি শ্যুটিং থেকে ব্রেক নিয়েছেন। এই পরিস্থিতিতে মিডিয়ার সামনে মুখ দেখা যায়নি তাকে। তিনি আসেননি ক্যামেরার সামনে ও।

যদিও এর আগেও কোভিদ আক্রান্ত হওয়ার কারণে শুটিং থেকে ব্রেক নিয়েছিলেন তিনি। বেশ কিছুদিন গৃহবন্দি হয়ে থাকার পরে আরো একবার শুটিংয়ে ফিরে গেছেন শিল্পা শেট্টি। কিন্তু এবারের ঘটনাটি একেবারে অন্য। গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে, শিল্পা শেট্টি শো এর সঙ্গে যুক্ত থাকলে বদনাম হতে পারে শোয়ের। তাই বিচারকের পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হলো তাকে।

প্রসঙ্গত, পর্নোগ্রাফি ছবি এবং মোবাইল অ্যাপ হটশট এর মাধ্যমে অশ্লীল ছবি ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছে রাজ কুন্দ্রা কে। পুলিশ কর্তাদের দাবি অনুযায়ী, ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে যথেষ্ট প্রমাণ রয়েছে তাদের কাছে। গতকাল সেগুলি আদালতে পেশ করে দেখানো হয়েছে। আপাতত আগামী শুক্রবার পর্যন্ত পুলিশি হেফাজতে রাজ কুন্দ্রকে রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বিচারক।

রাজ কুন্দ্রা ছাড়াও রাজের আইটি বিভাগের দায়িত্বে থাকা রায়ানকেও গ্রেফতার করা হয়েছে। সব মিলিয়ে মোট ৯ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। পুলিশ জানিয়েছেন, অ্যাপের সঙ্গে কোনো রকম লেনদেন অস্বীকার করেছেন রাজ কুন্দ্রা। হ্যাপির ফাইন্যান্সের বিষয়ে আপডেট রাখতেন শিল্পপতি কিন্তু আর কোনো বিষয়ে তিনি কিছু জানেন না। গহনা বশিষ্ঠ নামে এক মহিলার গ্রেফতার হবার পর নাম উঠে আসে রাজ কুন্দ্রার প্রাক্তন ব্যক্তিগত সহকারি উমেশ কামাতের। তারপর রাজের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয় এবং তাকে গ্রেফতার করা হয়।

এদিকে সম্প্রতি মুক্তি পেতে চলেছে শিল্পা শেটি নতুন ছবি যেখানে অভিনয় করতে দেখা যাচ্ছে পরেশ রাওয়াল এবং মিজান জাফরি কে। সিনেমাটি শুক্রবার মুক্তি পাবার অপেক্ষায় বসে রয়েছে। অন্যদিকে আরো একটি সিনেমা মুক্তি পাবে কিছুদিন পরেই। কিন্তু এই পরিস্থিতিতে এই সিনেমাগুলির ব্যবসা কতখানি সফল হবে তা বোঝা যাচ্ছে না।