দলের সভাপতি নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে চলেছেন শশী থারুর এবং অশোক গেহলট

7
দলের সভাপতি নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে চলেছেন শশী থারুর এবং অশোক গেহলট

রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলটের সঙ্গে কেরলের তিরুবনন্তপুরমের সাংসদ প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী শশী থারুরের মুখোমুখি সংঘাত বেঁধেছে। ১৭ই অক্টোবর দলের সভাপতি নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে হতে পারে তাদের। বিশিষ্ট সূত্রে খবর আগামী ২৫ সেপ্টেম্বর দিল্লিতে আসবেন অশোক গেহলট। সভাপতি নির্বাচনের প্রতিদ্বন্দ্বিতার জন্য তিনি ২৬ শে সেপ্টেম্বর মনোনয়ন জমা দিতে চলেছেন।

রাজস্থানের তিনবারের মুখ্যমন্ত্রী অশোক কংগ্রেসের প্রবীণ নেতাদের মধ্যে একজন। ছাত্র অবস্থা থেকেই তিনি রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত। ৭১ বছর বয়সী এই রাজনৈতিক নেতা শুরু থেকেই কংগ্রেসে থেকে রাজনীতি করে আসছেন। অন্যদিকে ৬৬ বছর বয়সি থারুর রাষ্ট্রপুঞ্জের আন্ডার সেক্রেটারি পদে কর্মরত ছিলেন। তিনিও দীর্ঘদিন ধরেই সক্রিয় রাজনীতিতে অংশ নিয়েছেন।

সোমবার হরিয়ানার প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ভূপেন্দ্র হুদার ছেলে দীপেন্দ্র এবং দিল্লির কংগ্রেস নেতা জয় প্রকাশ অগ্রবালের উপস্থিতিতে কংগ্রেস সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধীর সঙ্গে দেখা করেছিলেন শশী থারুর। কংগ্রেসের একটি সূত্র থেকে জানানো হয়েছে যে সভাপতি পদে নির্বাচনে লড়াইয়ের জন্য সোনিয়ার কাছে অনুমতি চেয়েছিলেন তিনি।

ইতিমধ্যেই কংগ্রেসের দলীয় নেত্রী তাকে অনুমতি দিয়েছেন। ২০২০ সালের আগস্ট মাসের কংগ্রেসের অন্ডারে একাধিক বিষয় নিয়ে অভিযোগ তুলে সোনিয়াকে চিঠি পাঠিয়েছিলেন ২৩ জন নবীন এবং প্রবীণ নেতা। তারা তাদের চিঠিতে হাই কমান্ডের কর্মপদ্ধতি নিয়েও প্রশ্ন তুলেছিলেন। এই ২৩ জনের মধ্যে বেশ কয়েকজন ইতিমধ্যেই দল ছেড়ে গিয়েছেন।