শাহ-বিজয়ন বন্ধুত্ব নিয়েও জল্পনা তুঙ্গে!

14
শাহ-বিজয়ন বন্ধুত্ব নিয়েও জল্পনা তুঙ্গে!

অনেক আগেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও কেরলের মুখ্যমন্ত্রীকে একমঞ্চে দেখা গিয়েছে। এবার শাহ-বিজয়ন বন্ধুত্ব নিয়েও জল্পনা তুঙ্গে ওয়াকিবহাল মহলে। যা মোটেই ভালভাবে নিচ্ছে না কংগ্রেসের মতো বিরোধীরা।

প্রশ্ন উঠছে যে, কেরলে বিজেপি এত দুর্বল, সেখানে শাসক বামেদের সঙ্গে তাদের এই নয়া ঘনিষ্ঠতা কি কোনও নতুন কৌশল। কেবল নানা গুঞ্জন ঘুরপাক খাচ্ছে। মোদি ও বিজয়নের মধ্যে সুসম্পর্ক কোনও নতুন কথা নয়।

রাজ্যের নানা ইস্যু নিয়ে কথা বলতে কোনও ভায়া হয়ে নয়, সরাসরি ফোন ঘুরিয়েই কেরলের মুখ্যমন্ত্রী কথা বলেন প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে। এবার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গেও তাঁর সুসম্পর্কের গুঞ্জন জোরালো হচ্ছে।

অমিত শাহ গত ৪ সেপ্টেম্বর নৌকা দৌড়ের প্রতিযোগিতায় প্রধান অতিথি হয়েছিলেন। পাশাপাশি দক্ষিণাঞ্চলের কাউন্সিলের বৈঠকেও তাঁকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল। পিনারাই বিজয়নের মতো বামপন্থী নেতা, যাঁর সঙ্গে বিজেপির ভাবাদর্শের ন্যূনতম কোনও মিল নেই, তিনি কেন এভাবে মোদি-শাহর সঙ্গে ঘনিষ্ঠতা বাড়াচ্ছেন? আসলে সোনা পাচার মামলায় যথেষ্ট অস্বস্তিতে কেরলের মুখ্যমন্ত্রী।