যৌন মিলন করেই যাচ্ছে মারা! ১৭ বছর পর মাটির নিচ থেকে বের হচ্ছে এই বিশেষ পোকা

9
যৌন মিলন করেই যাচ্ছে মারা! ১৭ বছর পর মাটির নিচ থেকে বের হচ্ছে এই বিশেষ পোকা

আমাদের চারপাশে এমন অনেক বিচিত্র ঘটনা ঘটে থাকে যা আমাদের কাছে হয় কল্পনার অতীত। সম্প্রতি শুনতে পাওয়া গেছে যে, একটি বিশেষ ধরনের পোকা ১৭ বছর পরে মাটির নিচ থেকে বের হচ্ছে। সিকাডা নামে এই পোকাগুলি ধীরে ধীরে আমেরিকার ১৫ টি রাজ্যে ছেয়ে গেছে। এর আগে ২০০৪ সালে দেখতে পাওয়া গিয়েছিল এই পতঙ্গ কে। এরপর এই বছর দেখতে পাওয়া যাচ্ছে একে। ২০৩৮ সালে আরো একবার দেখা পাওয়া যাবে এই ধরনের পতঙ্গ কে। চলতি বাংলা ভাষায় আমরা এদিকে বলি উচ্চিংড়ে.

বিজ্ঞানীদের মত অনুযায়ী, এই পোকাটি মাসস্পরা নামে একটি ছত্রাক দ্বারা সংক্রমিত হয়েছে। এই ছত্রাকটি তে একটি কঠিন যৌগ আছে যার কারণে কীটপতঙ্গরা নিজেদের নিয়ন্ত্রণ করে রাখতে পারে না। সংক্রমিত হবার পরে তাদের ত্বক খসে পড়তে থাকে। এইভাবে ৪ অথবা ৬ সপ্তাহের জন্য যৌন মিলন করে এবং স্ত্রী উচ্চিংড়ে ডিম পাড়ে। তারপরে অস্বাভাবিক ভাবে সকলেরই মৃত্যু হয়।

কিছু কোচিংএ তার মধ্যে মাটির নিচ থেকে বেরিয়ে এসে বন্য হয়ে যায়। তাদের পুরো শরীর ছত্রাকে সংক্রমিত হয়ে যায়। এই ছত্রাক কেবল তাদের পেট নয়, তাদের যৌনাঙ্গ কে নষ্ট করে দেয়। ছত্রাক এর সংস্পর্শে আসার পর সিকাডা নামক এই পতঙ্গ অনেকটা যৌন সক্রিয় হয়ে ওঠে।

আমেরিকার ওয়েস্ট ভার্জিনিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের বন প্যাথলজির সহযোগী অধ্যাপক দুই বছর ধরে এই নিয়ে পড়াশোনা করে জানিয়েছেন যে, এটি কল্পনা থেকে অদ্ভুত। এই ছত্রাকটি তে অদ্ভুত কিছু লক্ষ্য করা গেছে। আক্রান্ত হবার পর পোকামাকড়ের যৌন ইচ্ছা অত্যাধিক বেড়ে যাচ্ছে। মাটি থেকে বের হবার সাথে সাথেই এই ছত্রাক তাদের সংক্রমিত করে। এ কারণে তাদের ত্বক বের হবার সাথে সাথেই খসে পড়তে শুরু করে।

তিনি আরো জানান যে, এই ছত্রাক টি শিকারের পেছনে চক বা রাবারের মতো লেগে থাকে। কীটপতঙ্গদের যৌন ইচ্ছা বৃদ্ধি করে দেয় এটি। ছত্রাক টি বিভিন্ন ধরনের সিকাডা আলাদা ক্রিয়া করে। বিজ্ঞানী অনুমান করেছেন যে, ছত্রাক সম্ভবত ৫ শতাংশের কম উচ্চিংড়কে সংক্রমিত করে।

Cicada