পচাগলা মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখে এলাকায় চাঞ্চল্য

4
পচাগলা মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখে এলাকায় চাঞ্চল্য

মালদা, ২১ জুন: ঘটনাটি ঘটেছে হবিবপুর থানার ঋষিপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের চাতরা বিলে, মঙ্গলবার সকালে স্থানীয়দের নজরে আসে বিষয়টি। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় হবিবপুর থানার আইসি অমিতাভ সরকার ও পুলিশ অফিসারেরা। মৃত ব্যক্তির নাম পরিচয় জানার চেষ্টা করে পুলিশ।

তবে হবিবপুর থানার ঋষিপুর বুড়িতলা এলাকায় পরিতোষ মন্ডল(৫৪) নামে এক ব্যক্তি গত ১৭ দিন ধরে নিখোঁজ রয়েছেন। তাদের পরিবারের লোকেরা মৃতদেহটিকে দেখে অনুমান করছেন সেই নিখোঁজ ব্যক্তি হতে পারে।

নিখোঁজ ব্যক্তির বৌদি বেলি মণ্ডলের দাবি ওই মৃতদেহটি তার দেওরের হতে পারে‌। পরনের কাপড় দেখে তিনি অনুমান করছেন , পাশাপাশি তিনি এও জানান ১৭ দিন আগে তার দেওর, স্ত্রীর মধ্যে জায়গা জমি সংক্রান্ত নিয়ে ঝামেলা চলছিল। দেওরকে স্ত্রী, মেয়ে, জামাই মিলে প্রাণে মেরে ফেলে দেয় তার অনুমান।

নিখোঁজ ব্যক্তির পুত্র শুভজিৎ মন্ডল জানিয়েছে, তার বাবা ১৭ দিন আগে তার সাথে ঝেমেলা করে এবং মারধর করে সে বাড়ি ছেড়ে চলে যায় এবং তার মা ও জামাই তার বাবাকে খুন করবে বলে বলেছিল। পুরো ঘটনায় ধোঁয়াশা তৈরি হয়েছে।
এদিকে হবিবপুর থানার পুলিশ পচা গলা মৃতদেহ উদ্ধার করে মালদা মেডিকেল কলেজে ও হাসপাতালে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়ে ঘটনার তদন্ত শুরু করে হবিবপুর থানার পুলিশ। যদিও থানায় অভিযোগ দায়ের হয়নি।