ফের সংকটে পাকিস্তানে সংখ্যালঘু হিন্দু সম্প্রদায়

8
পাকিস্তানে সংখ্যালঘু হিন্দু সম্প্রদায়ের নিরাপত্তা

পাকিস্তানে সংখ্যালঘু হিন্দু সম্প্রদায়ের নিরাপত্তা প্রসঙ্গে ফের একবার প্রশ্ন উঠলো। একই পরিবারের পাঁচ জন সদস্যের মর্মান্তিক মৃত্যু হলো পাকিস্তানে। অনুমান করা হচ্ছে ওই হিন্দু পরিবারের সদস্যদের খুন করেছে কিছু অজ্ঞাত পরিচয় দুষ্কৃতী। ঘটনাটি ঘটেছে গত শুক্রবার, পাকিস্তানের রহিম ইয়ার খান শহর থেকে অন্তত ১৫ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত আবুধাবি কলোনির ১৩৫-পি চকে।

স্থানীয়রা জানাচ্ছেন, ওই এলাকার বাসিন্দা রাম চাঁদ নামক ৩৬ বছর বয়সী এক যুবক ও তার পরিবারের সদস্যদের নৃশংসভাবে খুন করা হয়েছে। বিশিষ্ট সমাজকর্মী বীরবল দাস একটি আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যমে সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে জানিয়েছেন, মৃত ব্যক্তি রাম চাঁদ দীর্ঘদিন ধরেই ওই এলাকায় বসবাস করতেন।

পেশায় দর্জি ওই ব্যক্তির সঙ্গে স্থানীয় এলাকার কারোর কোনো বিবাদ ছিল না বলেই জানা যাচ্ছে। এলাকার সকলের সঙ্গেই তার সম্পর্ক বেশ ভালো ছিল বলেই জানা যাচ্ছে। কি কারনে এমন ঘটনা ঘটলো তা ভেবে পাচ্ছেন না প্রতিবেশীরা। সূত্রের খবর, কোনো ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে খুন করা হয়েছে রাম চাঁদ এবং তার পরিবারের সদস্যদের।

প্রসঙ্গত, পাকিস্তানে বসবাসকারী সংখ্যালঘু হিন্দুদের প্রায়শই মৌলবাদী মানসিকতা সম্পন্ন মানুষদের অত্যাচারের শিকার হতে হচ্ছে। এই নিয়ে “হিন্দু ফোরাম অফ ব্রিটেন” এর তরফ থেকে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের কাছে একটি চিঠি পাঠানো হয়েছিল। সেখানে পাকিস্তানের সংখ্যালঘু হিন্দুদের দুঃখ-দুর্দশার কথা সবিস্তারে বর্ণনা করা ছিল। চিঠি প্রদানকারীদের আবেদন, ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপে এই পরিস্থিতির দ্রুত সুরাহা হোক।