পিছানোর সম্ভাবনা নেই মাধ্যমিক এবং উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষাঃ ব্রাত্য বসু

27
পিছানোর সম্ভাবনা নেই মাধ্যমিক এবং উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষাঃ ব্রাত্য বসু

করোনা পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বিগ্ন রাজ্য প্রশাসন। এই মুহূর্তে করোনার গ্রাফ নিচে নামিয়ে আনাই একমাত্র লক্ষ্য রাজ্য সরকারের। করোনা আতঙ্কে দীর্ঘ প্রায় এক বছরেরও বেশি সময় ধরে স্কুল-কলেজ বন্ধ। ফলে ছাত্রছাত্রীদের পঠন পাঠন বন্ধ। চূড়ান্ত বর্ষের পরীক্ষার্থী মাধ্যমিক এবং উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের পরীক্ষার ক্ষেত্রে কি হবে সেই নিয়ে বৃহস্পতিবার রাজ্যের নতুন শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসুর একটি বৈঠকে বসার কথা ছিল।

ছাত্র ছাত্রীরা এবং তাদের অভিভাবকেরা মনে করেছিলেন যে বৈঠকে হয়তো শিক্ষা মন্ত্রী মাধ্যমিক এবং উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেবেন। তবে তেমনটা হলো না। আগামী মাসের শুরু থেকেই যে মাধ্যমিক এবং উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার দিনক্ষণ নির্ধারণ করা হয়েছিল তাতে আপাতত কোনো পরিবর্তন আনা হলো না। বদলে শিক্ষামন্ত্রী জানিয়ে দিলেন যে, পরীক্ষা সংক্রান্ত বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এদিন ব্রাত্য বসু অবশ্য জানিয়েছেন, করোনা নিয়ন্ত্রণে আসার পরে চূড়ান্ত বর্ষের পরীক্ষার্থীদের জন্য পরীক্ষার আয়োজন করা হবে। তবে এই বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আপাতত মুখ্যমন্ত্রী সিদ্ধান্তের উপরেই নির্ভর করে রয়েছে রাজ্যের হাজার হাজার পরীক্ষার্থীর ভবিষ্যৎ।

প্রসঙ্গত করোনার কথা মাথায় রেখে চলতি শিক্ষাবর্ষে মাধ্যমিক এবং উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার দিনক্ষণ অনেক পরে ঠিক করা হয়েছে। আগামী জুন মাসের এক তারিখ থেকে মাধ্যমিক এবং ১৫ তারিখ থেকে উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা হওয়ার কথা আছে। নির্ধারিত দিন থেকে পিছিয়েই কার্যত মাধ্যমিক এবং উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার দিনক্ষণ ঠিক করা হয়েছে। এখন চূড়ান্ত বর্ষের পরীক্ষা একই দিনে হবে নাকি আরো পিছিয়ে যাবে তা নির্ভর করছে মুখ্যমন্ত্রীর উপর।