রাস্তায় গান গেয়ে টাকা নিলেন সারা আলি খান

6
রাস্তায় গান গেয়ে টাকা নিলেন সারা আলি খান

বলিউডের নতুন প্রজন্মের হিরো হিরোইনদের মধ্যে অন্যতম জনপ্রিয় হলেন সারা আলি খান।তিনি দিলখোলা, সদাহাস্যময়ী। তবে অভিনেত্রী হওয়ার অনেক আগে তার পরিচয় হল তিনি অমৃতা সিং এবং সাইফ আলি খানের কন্যাসন্তান তথা প্রথম সন্তান। তাই ছোট থেকেই সারার আদর একটু বেশি। তবুও তারকাসুলভ হাবভাব তাঁর প্রায় নেই বললেই চলে। ইন্ডাস্ট্রিতে আসার পর থেকেই একাধিক বিতর্কে জড়িয়েছেন সইফ-কন্যা। কখনও সুশান্তের সঙ্গে সম্পর্ক নিয়ে, কখনও বা মাদককান্ডে নাম জড়িয়েছে তাঁর। সে সব নিয়ে যদিও কখনোই মুখ খুলতে দেখা যায়নি সারাকে। যাবতীয় বিতর্ক থেকে নিজেকে সবসময় দূরে রাখতেই স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করেন তিনি। আবারও এক বিতর্কে নাম জড়াতে চলেছে তাঁর। তিনি নাকি শেষমেশ রাস্তায় নেমে গান ধরেছেন!

না, এ কোনো ছবির দৃশ্য নয়। বাস্তবেই এমন কান্ডটা ঘটিয়ে ফেলেছেন সইফ কন্যা সারা। আর গান গাওয়ার সাথে সাথে অনুরাগীদের সঙ্গে হাসি মুখে ছবি তুলেছেন, এমনকি ধৈর্য সহকারে অটোগ্রাফও দিয়েছেন। কিন্তু এসব এমনি এমনি নয়, পরিবর্তে অনুরাগীদের থেকে তিনি নাকি টাকা নিয়েছেন।

তবে কি অভিনয় ছেড়ে বলিউড তারকা সারা নতুন উপায়ে অর্থ উপার্জন করছেন! না, এসব অন্য কিছু নয়। সারা সবটাই করছে একটি রিয়্যালিটি শোয়ের সুবাদে। ‘দ্য খতরা খতরা শো’য়ে অতিথি হয়ে গিয়েছিলেন সারা। সেখানেই তাঁকে রাস্তায় নেমে টাকা সংগ্রহ করে আনার কাজ দিয়েছিলেন ফারহা খান। অগত্যা কমেডিয়ান ভারতী সিংকে সঙ্গী করে সারা পথে নেমে এই মজার কাজে ব্যস্ত।

প্রথমে সারা রাস্তা পরিষ্কার করে অর্থ উপার্জনের কথা ভাবলেও মজার সুরে ভারতী বলেন, “তাতে অনেক সময় লেগে যাবে, আর তখন তোমার ছবিগুলো আমাকেই করতে হবে। আমাদের চেহারা তো একই রকম। কি বলো!” এর পরেই আচমকা সারা গলা ছেড়ে উচ্চস্বরে বলতে শুরু করেন, “হ্যালো হ্যালো, টাকা দিন আর সেলফি তুলুন।”

এর পর দুই ব্যক্তি কুড়ি টাকার বিনিময়ে ছবি তুলতে এসেছিলেন। কিন্তু সারা রাজি হননি। এক অনুরাগী ১০০ টাকা দিলে তাঁর সঙ্গে নিজস্বী তোলেন সইফ-কন্যা। জনৈক পথচারী আবার ৫০০ টাকা দেওয়ার প্রস্তাবও রাখেন। তাঁর আবদার, সারাকে গান গেয়ে শোনাতে হবে। রাজি হয়ে যান অভিনেত্রী। সেই অর্থের বিনিময়ে ‘কালি কালি আঁখে’ এই গান গেয়ে শোনান তিনি।