লাগাতার ফ্লপ ফিল্মের নায়িকা অভিনেত্রী সন্দলি সিনহা! জানুন এখন কেমন আছেন?

4
লাগাতার ফ্লপ ফিল্মের নায়িকা অভিনেত্রী সন্দলি সিনহা! জানুন এখন কেমন আছেন?

মিষ্টি হাসির এক সুন্দরী বলিউডের নায়িকা আর সৌন্দর্যের জন্য তিনি বিপুল জনপ্রিয়। বলিউডের “তুম বিন” সিনেমাতে প্রিয়ার চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন এই নায়িকা। এই জনপ্রিয় নায়িকা বলিউড থেকে একদমই নিজেকে সরিয়ে নিয়েছিলেন কিন্তু সমস্ত দিক থেকে এত জনপ্রিয়তা অর্জন করেও কেন বলিউড জগত থেকে নিজেকে সরিয়ে নিয়েছিলেন? এখন তার ঠিকানাই বা কোথায়?

অভিনেত্রী সন্দলি সিনহা যিনি বর্তমানে একজন সফল ব্যবসায়ী। বর্তমানে গোটা দেশের মধ্যে সবথেকে বড় বেকারির মালিক। অভিনয় জগৎ থেকে সোজাসুজি ব্যবসাতে পা দেওয়ার গল্পটার ঠিক কেমন ছিল? বলিউডে পা রাখার পর প্রথম দিকে একটি কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করার সুযোগ পান অভিনেত্রী, কিন্তু স্বজনপোষণের ভিত্তিতে সমস্ত সিনেমাতেই তারকাদের সন্তানরাই জায়গা করে নেয়, যদিও এটা একাধিক নেটিজেনদের কথা।

” তুম বিন” সুপারহিট সিনেমা দিয়ে তিনজন নায়কের মধ্যে একজন নায়িকা চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন তিনি। কিন্তু এই অভিনেত্রীর আগে থেকে কোনরকম ফিল্ম জগতের সঙ্গে যোগাযোগ ছিল না। সন্দলির বাবা একজন বায়ুসেনার অফিসার এবং তার পরিবারের বেশিরভাগ সদস্য ছিলেন পেশাগত দিক থেকে বিমানচালক হয়তো চিকিৎসক। অভিনেত্রীর ইচ্ছে ছিল তিনি অভিনয় করবে না বরং ভবিষ্যতে তিনি একজন চিকিৎসক হবেন।

পরিবারে ছিল তার মা এবং বোন কারণ অনেক ছোট বয়সেই সন্দলি তার বাবাকে হারিয়ে ছিলেন। কলেজে পড়তে পড়তেই তার চিকিৎসক হওয়ার স্বপ্ন অন্য রাস্তা নিল। সন্দলি যখন দিল্লির জেসাস এন্ড মেরি কলেজে পড়াশোনা করছিলেন সেই সময়ে কিছু রেম্পে হেঁটে ছিলেন এবং তার পরপরই কিছু মডেলিং ও করেছিলেন। কলেজ থেকে পড়াশোনা শেষ করবার পর কিশোর নমিতা কাপুরের অভিনয় স্কুলে তিনি ভর্তি হন।

প্রথম দিকে সন্দলি কিছু মিউজিক অ্যালবামে কাজ করেছিলেন। পরিচালক অনুভব সিংহ “তুম বিন” সিনেমাটির জন্য বেছে নেয় সন্দলিকে। এই সিনেমাটিতে প্রিয়া চরিত্রে অভিনয় করার পর জনপ্রিয় হয়ে ওঠে সন্দলি। যদিও এরপরের তার কোন সিনেমা আর হিট হতে পারেনি। পরবর্তীকালে দক্ষিণের ছবিতেও তিনি চেষ্টা করেছিলেন যদিও তার ফলে এক হয়। ২০০৫ সালে যখন আরো একটি ছবি করেন এবং সেই সিনেমাটি যখন ফ্লপ হয় তারপরে অভিনেত্রী সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন তিনি আর অভিনয় করবেন না।

এরপর সিদ্ধান্ত নেন বিয়ে করার, এক ব্যবসায়ীকে বিয়ে করেন। আস্তে আস্তে তিন সন্তানের মা হন তিনি এবং স্বামীর ব্যবসাও নিজের হাতের ধরেন। বর্তমানে তার বেকারি কনট্রি অফ অরিজিন এবং তার একটি নিজের স্পাও রয়েছে মুম্বাইতে।