শ্রাবন্তীর সঙ্গে সম্পর্ক টিকিয়ে রাখতে আদালতের দ্বারস্থ রোশন

14
শ্রাবন্তীর সঙ্গে সম্পর্ক টিকিয়ে রাখতে আদালতের দ্বারস্থ রোশন

নিখিল-নুসরাত বিতর্কের পর এবার শ্রাবন্তী-রোশন জুটিকে কেন্দ্র করে ফের উত্তাল টলিপাড়া। নিখিল এবং নুসরাতের সম্পর্কের চড়াই-উৎরাইয়ের পর শ্রাবন্তী এবং রোশন জুটিকে কেন্দ্র করেও নতুন তথ্য উঠে এলো। নিখিল নুসরাতের থেকে বিচ্ছেদ চাইলেও শ্রাবন্তীর স্বামী রোশন কিন্তু তারকা পত্নীর কাছ থেকে বিচ্ছেদ চাইছেন না। এই মর্মে সম্প্রতি আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন তিনি।

শ্রাবন্তীর সঙ্গে একসঙ্গে থাকার অভিপ্রায় নিয়ে ‘রেস্টিটিউশন অব কনজুগাল রাইটস’ অর্থাত্ বৈবাহিক অধিকারের পুনঃপ্রতিষ্ঠা ধারায় আদালতে মামলা দায়ের করেছেন শ্রাবন্তীর স্বামী। তিনি তার স্ত্রীর সঙ্গে সম্পর্ক ভেঙে ফেলতে চান না। শ্রাবন্তীর সঙ্গেই বৈবাহিক সম্পর্ক টিকিয়ে রাখতে চান। রোশনের এই মামলার জেরে আদালতের তরফ থেকে ইতিমধ্যেই শ্রাবন্তীর কাছে একটি সমন গিয়ে পৌঁছেছে।

এ সম্পর্কে অবশ্য শ্রাবন্তী অথবা রোশনের কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি। তবে বিশ্লেষকদের দাবি, শ্রাবন্তীর সঙ্গে বিচ্ছেদ হলে যে মোটা অংকের খোরপোষ তিনি রোশনের থেকে দাবি করতেন, সেই খোরপোষ এড়াতেই নাকি পুরনো বৈবাহিক সম্পর্ককে আবার পুনঃ প্রতিষ্ঠা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন শ্রাবন্তীর স্বামী। আদালতের তরফ থেকে শ্রাবন্তীর কাছে যে সমন পৌঁছেছে সেখানে জুলাই মাসেই রোশনের স্যুটের উত্তর দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে তাকে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ২০১৯ সালেই মহা ধুমধাম করে শ্রাবন্তী এবং রোশনের বিবাহ হয়। রাজীব বিশ্বাস, কৃষণ ব্রজের পর তৃতীয়বার বিয়ের পিঁড়িতে বসার জন্য রোশন সিংকেই বেছে নেন এই টলি অভিনেত্রী। তবে এক বছরের মাথাতেই তারা একে অপরের থেকে আলাদা থাকতে শুরু করেন। এই নিয়েও অবশ্য সোশ্যাল মিডিয়ায় কম তরজা হয়নি। এবার তাদের সম্পর্ক নিয়ে বিতর্ক নতুন মোড় নিল।