হুইলচেয়ারে বসেই একাধিক ছবি শেয়ার করলেন ঋতাভরী চক্রবর্তী

6
হুইলচেয়ারে বসেই একাধিক ছবি শেয়ার করলেন ঋতাভরী চক্রবর্তী

খুব প্রাণবন্ত, ছটফটে, হাসিখুশি মেয়ে ঋতাভরী চক্রবর্তী। তাঁকে দেখামাত্র এই বিশেষণগুলিই মাথায় আসে। টলিউড অভিনেত্রী ঋতাভরী চক্রবর্তী যে শুধু সুন্দরী তাই নয়, পাশাপাশি তার রয়েছে একাধিক গুণ। তিনি ভালো গান, যেকোনো কাজের যেন সহজ সমাধান তাঁর কাছেই থাকে, আর সবচেয়ে বড় তাঁর এই সমাজসেবার মনোভাব তাকে অন্যান্য টলি নায়িকাদের থেকে আলাদা করে তুলেছে। আর তাঁর এই গুণের সমাহারের কারণেই তিনি আজ তাঁর অনুরাগীদের থেকে এত ভালোবাসা পেয়েছেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁর ফলোয়ারের সংখ্যা অনেক। কিন্তু কয়েক মাস ধরে অভিনেত্রী শারীরিক সমস্যায় ভুগছেন।

তাঁর অসুস্থতা দীর্ঘ সময়ের। বিগত কয়েক মাস আগে দু-দুটো অস্ত্রপচার হয়েছে অভিনেত্রীর। এরপর শয্যাশায়ী হয়ে পড়েছিলেন তিনি। তবে যে শুধু শরীর অসুস্থই ছিল তা নয়, মানসিক অবসাদেও ভুগছিলেন তিনি। ইতিমধ্যে সেকথা সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজেই জানিয়েছেন তিনি। আর এই অসুস্থতার জন্য দীর্ঘদিন বাড়িতে শয্যাশায়ী থাকার কারণে তাঁর ওজনও অনেকটাই বেড়ে যায়। সেই অসুস্থতা কাটিয়ে ধীরে ধীরে সুস্থ হচ্ছিলেন অভিনেত্রী। কিন্তু আবারও সোশ্যাল মিডিয়ায় ঋতাভরীর ছবি দেখে চিন্তায় পড়লেন অভিনেত্রীর অনুরাগীরা।

ঋতাভরী মঙ্গলবার ইন্সটাগ্রামে অনেকগুলি ছবি আপলোড করেছেন, যা দেখে রীতিমতো চিন্তায় পড়ে গিয়েছে প্রত্যেকেই। পায়ের যন্ত্রণায় হাঁটতে পারছেন না অভিনেত্রী, অগত্যা তার ভরসা হয়েছে হুইল চেয়ার। আর হুইলচেয়ারে বসেই একাধিক ছবি ইন্সটাগ্রামে শেয়ার করেছেন তিনি, তবে আনন্দের ব্যাপার এত ব্যথাও যেন চাপা পড়ে গিয়েছে তাঁর প্রাণখোলা হাসিতে।

জানা গিয়েছে, তাঁর গোড়ালি মচকে গিয়ে যন্ত্রণা হচ্ছে। তাই হাঁটতে পারছেন না। কিন্তু যাই হয়ে যাক, অভিনেতা অভিনেত্রীদের ক্ষেত্রে একটা কথা ভীষণ ভাবে প্রযোজ্য ‘ The Show must go on’। তাঁদেরকে সহজে দমানো যায় না। তাই হাজার যন্ত্রণা সহ্য করেও এদিন হাসি মুখেই কোল্ড ড্রিংকস্-এর এক সংস্থার উদ্যোগে আয়োজিত অনুষ্ঠানে কলকাতার এক হোটেলে উপস্থিত ছিলেন ঋতাভরী। মুখে ছিল সেই মিষ্টি হাসিটা।

এই ছবিগুলি শেয়ার করে ঋতাভরী লিখছেন, ”গত এক বছরে যা যা সহ্য করতে হয়েছে তার কাছে এটুকুতে থেমে থাকার প্রশ্নই ওঠেনা। তা কাজ হোক বা পূর্ব-প্রতিশ্রুতিই হোক কোনও কিছুকেই বাদ দেব না। কারণ অতীত আমায় আরও শক্তিশালী করে তুলেছে।“ তাঁর এই আত্মবিশ্বাসী মনোভাবই ভবিষ্যতে তাঁকে অনেকদূর এগিয়ে নিয়ে যাবে বলেই তাঁর অনুরাগীদের বিশ্বাস।