মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে “ষড়যন্ত্র” এর প্রতিশোধ তুলবেন, মিমির বক্ত্যব্য ঘিরে জল্পনা তুঙ্গে

10
মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে

একুশের বিধানসভা নির্বাচনের প্রেক্ষাপটে নন্দীগ্রামে মনোনয়নপত্র জমা দিতে গিয়ে এক দুর্ঘটনার কারণে গুরুতরভাবে আহত হন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে তৃণমূলের তরফে দলনেত্রীর বিরুদ্ধে বিরোধীদের ষড়যন্ত্রের অভিযোগ আনা হয়েছিল। ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে এবার মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে এমন “ষড়যন্ত্র” এর বিপক্ষে সরব হলেন তৃণমূল সাংসদ মিমি চক্রবর্তী।

এদিন বিধানসভা নির্বাচনের পেক্ষাপটে বারুইপুরে তৃণমূলের তরফে আয়োজিত জনসভা মঞ্চে উপস্থিত হয়ে ভোটের প্রচার চলাকালীন সংবাদমাধ্যমের সামনে মিমি কার্যত চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়ে জানালেন, মুখ্যমন্ত্রী যে কষ্ট পেয়েছেন, তার প্রতিশোধ নেবেন তিনি। তবে তার এই প্রতিশোধের মাধ্যম “মারামারি” হবে না। মানুষের জন্য কাজ করেই মিমি তার প্রতিশোধ তুলবেন।

উল্লেখ্য একুশের বিধানসভা নির্বাচনের প্রেক্ষাপটে মিমির এহেন মন্তব্যকে যথেষ্ট গুরুত্ব সহকারে দেখছে রাজনৈতিক মহল। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আঘাত পাওয়ার পর টলিউড অভিনেত্রী তথা তৃণমূল সাংসদ মিমি এবং নুসরাত হাসপাতালে তার সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছিলেন। তখনো মুখ্যমন্ত্রীকে নিয়ে আবেগপ্রবণ হয়ে পড়তে দেখা গিয়েছিল তাদের।

এদিন মিমি সংবাদমাধ্যমের সামনে দাবি করেন, তৃণমূল শিবির এই মুহূর্তে কোনও খারাপ সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে, এমনটা ভাবার কোনো কারণ নেই। মিমি এদিন বলেন, দলে যারা ভালো কাজ করছেন, তারা জিতবেই। তবে যারা খারাপ কাজ করছেন, দলের জন্য খারাপ সময় নিয়ে আসার চেষ্টা করছেন, তারা সকলের চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিচ্ছেন কতটা খারাপ তারা করতে পারেন! বারুইপুরের জনসভায় মিমির এই বক্তব্য ঘিরে রাজনৈতিক মহলে জোর তরজা শুরু হয়েছে।