তুলে নেওয়া হচ্ছে বিধিনিষেধ, কমছে যাত্রীবাহী বিমানের ভাড়া

7
তুলে নেওয়া হচ্ছে বিধিনিষেধ, কমছে যাত্রীবাহী বিমানের ভাড়া

এবার উড়ানপথে যাত্রীবাহী বিমানগুলোকে ১০% ছাড় দেওয়া হয়েছে। ভারতীয় বায়ুসেনার তরফ থেকে এয়ারস্পেসে আরও ১০% ছাড় যাত্রীবাহী বিমানের ক্ষেত্রে। আপাতত ১২ টি বিমান রুটে এই সিদ্ধান্ত কার্যকর হতে চলেছে। যার মধ্যে লখনৌ জয়পুর মুম্বাই শ্রীনগর অন্যতম। আসলে প্রথমের যে বিধিনিষেধ ছিল সেটাই এবার তুলে নেওয়া হচ্ছে যার ফলেই এখন খরচ কমে যাচ্ছে অনেকটাই। একটি রিপোর্টে বলা হয়েছে এই সিদ্ধান্তে প্রতি উড়ানে কমবে ৪০,০০০ টাকা। যার ফলে যাত্রীরা কমেই কিনতে পারবে বিমানের টিকিট।

এখন যাত্রী বাহী বিমানগুলো ভারতীয় এয়ার স্পেসের ৬০% বরাদ্দ করা হয়েছে, এই জায়গা দিয়ে আরামে চলতে পারে বিমান, আর বাকি যেসব জায়গা আছে সেখানে সেনাবাহিনীর বিমানের জন্য। তবে এবার যদি দেখা যায় এয়ারস্পেসের পরিমাণ বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে তাহলে ১০০০ কোটি টাকার মতো খরচ অনায়াসেই কমে যায়।

এমন একটি যে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে সেটা নির্মলা সীতারমণের মুখেই শোনা যায় পরে এবার অসামরিক বিমান পরিষেবা কে আরও উন্নত করতে পরিষেবা সুদৃঢ় করতে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। আর সেটাই এবার নেওয়া হল যেটা কিনা প্রধানমন্ত্রী, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও অর্থমন্ত্রীর সাথে বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

সূত্রের মাধ্যমে জানা যাচ্ছে, বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছে আসলে এই যে বিমান পরিষেবা সেটাকে আরো সুদৃঢ় করতেই ও করোনা পরিস্হিতির কারণেও এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। জানা গেছে যে এবার যাতে যাত্রীবাহী বিমানের ক্ষেত্রে সময় ও খরচ কম লাগে সেটাকে মাথায় রেখেই কাজ করা হবে। আগে যেমন সেনাকর্তৃক আকাশ পথে দিয়ে অসামরিক বিমান উড়তে পারত না এবার তারা সেটা সহজেই পারবে যার ফলে সব দিক থেকে লাভ হবে যাত্রীদের।