বিপদমুক্ত হতে স্মরণ করুন মা তারাকে! শীঘ্রই মিলবে উপকার

6
বিপদমুক্ত হতে স্মরণ করুন মা তারাকে! শীঘ্রই মিলবে উপকার

আদি শক্তি মহামায়া, তার বহু রূপের মধ্যে অন্যতম হলো মা তারা। মা তারাকে আমরা বিভিন্ন রূপে পুজো করে থাকি। কখনো শ্মশানকালী কখনো বা ভবতারিণী, তিনি আমাদের কাছে আসেন বিভিন্ন রূপ নিয়ে। তারা মা হলেন মা কালীর অন্য একটি রূপ তিনি হলেন, দশমহাবিদ্যার দ্বিতীয় মহাবিদ্যা।

আদি শক্তির উৎস হলেন মা কালী। ভক্তদের দুঃসময়ে মা সকলের পাশে এসে দাঁড়ান। মায়ের কাছে কোন মনোকামনা জানালে তিনি অপূর্ন রাখেন না। মায়ের স্থান তারাপীঠ আমাদের সকলের কাছে একটি পবিত্র ভূমি হিসেবে পরিচিত। শুধুমাত্র মাকে পুজো দিতে আসেন সকলে তা কিন্তু নয়, মায়ের কাছে পূণ্য সাধনের জন্য বহু তান্ত্রিক অথবা ঋষি এখানে থাকেন বহু যুগ ধরে।

তারাপীঠ অন্যতম সাধক বামাক্ষ্যাপার তীর্থস্থান। তিনি এখানে মা কালীকে দেখেছিলেন স্বচক্ষে। এখানে একবার এলে মনস্কামনা পূর্ণ না হয়ে যায় না। যখন সংসারে সকলে মুখ ফিরিয়ে নেয় তখন শুধুমাত্র মা তারার কাছে আশ্রয় পাওয়া যায়। যখন জীবনে সবাই আপনাকে হারিয়ে দেয়, তখন শুধুমাত্র মা তারার আশীর্বাদে আপনি আবার জয়ী হতে পারেন।

ভক্তিভরে মা তারাকে ডাকলে যে সবকিছু পাওয়া যায় তা বারবার প্রমাণিত হয়ে গেছে শ্রীরামকৃষ্ণ এবং বিবেকানন্দের কথায়। মনে করা হয় প্রতি মঙ্গলবার আপনি যদি মায়ের কাছে নিজের মনস্কামনা জানান, তাহলে সেই আশা অপূর্ন রাখেন না মা।