সম্প্রতি তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদান করলেন সিরাজ খান

14
সম্প্রতি তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদান করলেন সিরাজ খান

তৃণমূল নেতৃত্ব শুভেন্দু অধিকারীর সঙ্গে দলের যোগসূত্র এখন তেমন মজবুত নয়। দলীয় কর্মসূচিতে এখন আর শুভেন্দু অধিকারীর দেখা মেলে না। অপরদিকে তৃণমূল নেতৃত্বের বিরুদ্ধে মন্তব্য করতেও ছাড়েন না শুভেন্দু। রাজনৈতিক মহলে গুঞ্জন, তলে তলে দল ছাড়ার পরিকল্পনা করছেন শুভেন্দু অধিকারী। তবে রাজ্যের বর্তমান পরিবহন মন্ত্রী অবশ্য এ বিষয়ে তার সিদ্ধান্ত এখনো জানাননি। তবে শুভেন্দু ঘনিষ্ঠ সিরাজ খানের বিজেপি যোগ জল্পনা আরও বাড়ালো।

সম্প্রতি তৃণমূল ছেড়ে বিজেপি দলে যোগদান করলেন সিরাজ খান। দল বদল করেই তৃণমূলের বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন তিনি। রাজ্য সরকারের বিপুল সমালোচনা করে তিনি জানালেন, দল ত্যাগ করার আগে শুভেন্দু অধিকারীর আশীর্বাদ পেয়েছেন তিনি। অর্থাৎ তাঁর দল ত্যাগের পরিকল্পনায় পূর্ণ সমর্থন জানিয়েছেন শুভেন্দু অধিকারী। স্বভাবতই রাজনৈতিক মহলে প্রশ্ন উঠছে, এবার কি তবে শুভেন্দু অধিকারীর দলত্যাগের পালা?

পূর্ব মেদিনীপুরের জেলা পরিষদের খাদ্য কর্মাধ্যক্ষ হিসেবে নিযুক্ত রয়েছেন সিরাজ খান। বিজেপি নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয় এবং লকেট চট্টোপাধ্যায়ের উপস্থিতিতে বিজেপি দলে যোগদান করেন তিনি। গেরুয়া শিবিরের সান্নিধ্যে এসেই তৃণমূলের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিলেন প্রাক্তন তৃণমূল কর্মী। তার অভিযোগ, রাজ্যের উর্বর কৃষি জমি নষ্ট করছে তৃণমূল সরকার। দলে নিজের ইচ্ছামত কাজ করা যায় না। তাঁর আরও অভিযোগ, সংখ্যালঘু সম্প্রদায়কে বোকা বানাচ্ছে তৃণমূল সরকার।

তিনি আরো বলেছেন, তার দপ্তরে কাজ ঠিকমতো হচ্ছে না। এই নিয়ে তিনি বহুবার অভিযোগ করেছেন। ছদ্মবেশ ধারণ করে উপযুক্ত প্রমাণও দিয়েছেন। তার পরেও সরকারের কোনো হেলদোল নেই। তাই তিনি বিজেপি দলে যোগদান করেছেন। এখন পুলিশ তাকে গ্রেফতার করতে পারে, কিন্তু রাজ্যের মানুষ তাকে নিরাপত্তা দেবে। উল্লেখ্য, সিরাজ খানের দলবদল স্বভাবতই শুভেন্দু অধিকারীকে নিয়ে জল্পনা আরও উস্কে দিল। এদিকে বিজেপি নেত্রী লকেট চ্যাটার্জি জানিয়েছেন, শুভেন্দু অধিকারীর জন্য বিজেপি দলের দরজা সর্বদা খোলা রয়েছে। এমতাবস্থায় তিনি কি সিদ্ধান্ত নেন, তা জানতে উৎসাহী রাজনৈতিক মহল।