সম্প্রতি খেজুরিতে মৎস্যজীবীদের জালে ধড়া পড়লো এক বিরল প্রজাতির কচ্ছপ

10
সম্প্রতি খেজুরিতে মৎস্যজীবীদের জালে ধড়া পড়লো এক বিরল প্রজাতির কচ্ছপ

খেজুরিতে বিরল প্রজাতির কচ্ছপ ধরা পড়লো মৎস্যজীবীদের জালে। খেজুরির তালপাটিঘাট কোস্টাল থানার এলাকার খেজুরি গ্রামে সুবিমল বেরা নামের এক মৎস্যজীবির জালে ধরা পড়েছে হলুদ রঙের একটি কচ্ছপ। এই প্রজাতির কচ্ছপ সচরাচর দেখা যায় না। স্বভাবতই মৎস্যজীবির জালে হলুদ রঙের কচ্ছপ ধরা পড়েছে জানতে পেরেই কচ্ছপটিকে দেখার জন্য এলাকায় ভিড় জমান সাধারন মানুষ। সুবিমল বেরা নামের ওই মৎস্যজীবীর বাড়িতে সাধারণ মানুষ উপচে পড়েন কচ্ছপটিকে এক ঝলক দেখার জন্য।

উল্লেখ্য পরে অবশ্য বন দপ্তরের সঙ্গে যোগাযোগ করে কচ্ছপটিকে বন বিভাগের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। বন বিভাগের আধিকারিক প্রফুল্ল কুমার বাগদি কচ্ছপটিকে সুরক্ষিত রাখার জন্য সংগ্রহ করে নিয়ে গিয়েছেন বলে জানা গিয়েছে। হলুদ রঙের কচ্ছপ একপ্রকার বিরল প্রজাতির কচ্ছপ। অনুমান করা হচ্ছে এই প্রজাতির কচ্ছপ আসলে অ্যালবিনো প্রজাতির কচ্ছপ হতে পারে।

বিগত কয়েক বছর আগে সিন্ধুর এক বাসিন্দা এই প্রজাতির কচ্ছপ উদ্ধার করেছিলেন। মাঝেমধ্যেই অবশ্য মৎস্যজীবীদের জালে এই প্রজাতির কচ্ছপ উঠে আসে। গত বছরে ওড়িশার বালাসোর জেলার এক গ্রামেও এক মৎস্যজীবীর চোখে ধরা পড়ে এই কচ্ছপ। সেই কচ্ছপটি সমুদ্রের জলে ভেসে এসেছিল বলে অনুমান করা হয়েছিল। কিছুদিন আগে বর্ধমানের এই প্রজাতির একটি কচ্ছপ উদ্ধার করেছিলেন এক মৎস্যজীবী।

গ্রামবাসীরা জানাচ্ছেন কয়েক বছর আগে পর্যন্ত এই প্রজাতির কচ্ছপ সচরাচর দেখা যেত না। তবে বিগত কয়েক মাসে এক মাস অন্তর অন্তরই হলুদ রঙের কচ্ছপের দেখা মিলছে। যার ফলে সাধারণ মানুষের কাছে এই প্রজাতির কচ্ছপ নিয়ে আগ্রহ ক্রমশ বাড়ছে।