অভিষেক ত্রিপুরায় পৌঁছানোর আগেই সেখানে পৌঁছে গেলেন রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়! জল্পনা তুঙ্গে

11
অভিষেক ত্রিপুরায় পৌঁছানোর আগেই সেখানে পৌঁছে গেলেন রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়! জল্পনা তুঙ্গে

আগামী রবিবার অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় ত্রিপুরা সফর করতে চলেছেন। তবে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় ত্রিপুরায় পৌঁছানোর আগেই সেখানে পৌঁছে গেলেন রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়। এই নিয়ে কার্যত রাজনৈতিক মহলে জোর জলঘোলা শুরু হয়েছে। রাজীবের ত্রিপুরা সফরের পিছনে কি উদ্দেশ্য আছে সেই নিয়ে জল্পনা উঠেছে চরমে। অনেকেই মনে করছেন ত্রিপুরাতেই তৃণমূলে যোগদান করবেন রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়।

যদিও রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় অবশ্য সব জল্পনা উড়িয়ে দিচ্ছেন। তার বক্তব্য ত্রিপুরাতে তার আত্মীয়স্বজন রয়েছেন। সেখানে একটি সামাজিক অনুষ্ঠানে যোগ দিতে যাচ্ছেন তিনি। ব্যক্তিগত কাজে তিনি ত্রিপুরা সফরে যাচ্ছেন বলে জানিয়েছেন। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় এর আগেও ত্রিপুরাতে গিয়েছিলেন। তখন ত্রিপুরেশ্বরী মন্দিরে পূজা দিয়েছিলেন তিনি।

রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের দাবি, ত্রিপুরা কার্যত রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের নখদর্পণে। তাই ত্রিপুরাতে তৃণমূল দলের সম্প্রসারণ এর ক্ষেত্রে রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের সাহায্য প্রয়োজন। দল ছাড়লেও অবশ্য অন্যদের তুলনায় রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের ইমেজ বেশ ভালো। বিধানসভা নির্বাচনের আগে দল ছেড়ে বেরোনোর সময় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি নিয়ে বেরিয়েছিলেন রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়।

এদিকে আবার ইদানিং তৃণমূল নেতাদের সঙ্গে রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের মেলামেশা বাড়ছে। কখনো কুনাল ঘোষ কখনো আবার পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছেন তিনি। এছাড়াও তৃণমূল নেত্রীর প্রতি বিজেপির আচরণের বিরোধিতাও করছেন তিনি। সব মিলিয়ে রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিয়ে রাজ্য রাজনীতিতে জোর জল্পনা চলছে।