বোনাস না পাওয়ায় ২২শে অক্টোবর দেশজুড়ে দুই ঘন্টার প্রতীকী ধর্মঘটের ডাক দিল রেল কর্মচারী সংগঠন

8
বোনাস না পাওয়ায় ২২শে অক্টোবর দেশজুড়ে দুই ঘন্টার প্রতীকী ধর্মঘটের ডাক দিল রেল কর্মচারী সংগঠন

আগামীকাল অর্থাৎ ২২শে অক্টোবর দেশজুড়ে দুই ঘন্টার প্রতীকী ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে রেল কর্মচারী সংগঠন। উৎসবের আগে বোনাস না পাওয়ায় কেন্দ্রের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাতেই দুই ঘণ্টার এই প্রতিবাদে সামিল হতে চলেছেন রেলকর্মীরা। উল্লেখ্য, রেল কর্মচারী সংগঠনের এই পরিকল্পনা বাস্তবায়িত হলে, দীর্ঘ ৪৬ বছর পরে ভারতীয় রেল পরিষেবা বেশ কিছুক্ষণের জন্য বন্ধ থাকতে চলেছে।

এর আগে ১৯৭৪ সালে তৎকালীন রেল কর্মচারী সংগঠনের নেতা জর্জ ফার্নান্ডেজের নেতৃত্বে “রেলের চেয়ে জেল ভালো” স্লোগান দিয়ে রেলওয়ে কর্মচারীরা সমগ্র দেশে রেল পরিষেবা বন্ধ করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছিলেন। তবে তাদের সেই পরিকল্পনা বাস্তবায়িত হয়নি। ধর্মঘট করার আগেই দেশে জরুরি অবস্থা জারি করে তৎকালীন প্রশাসন। ফলে ধর্মঘটের আয়োজন ভেস্তে যায়।

অল ইন্ডিয়া রেলওয়েমেন’স ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক শিব গোপাল মিশ্র জানালেন, ১৯৭৪ সালেও বোনাসের দাবি জানিয়ে ধর্মঘটের আহ্বান জানিয়েছিলেন রেলওয়ে কর্মীরা। কর্মীদের দাবি মেনে অবশেষে ১৯৭৯ সাল থেকে প্রতি বছর পুজোর আগে রেল কর্মীদের বোনাস দেওয়ার প্রচলন শুরু করে কেন্দ্রীয় সরকার। চলতি বছরে ২১শে অক্টোবর পর্যন্ত অপেক্ষা করবেন তারা।

এরমধ্যে বোনাস সংক্রান্ত কোনো ঘোষণা না হলে, ধর্মঘটের দিকেই এগোবেন কর্মচারীরা। মধ্য রেলের ন্যাশনাল রেলওয়ে মজদুর ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক ভেণু নায়ার বলেছেন, ২০১৯-২০ অর্থবর্ষে রেল কর্মীদের বোনাস দেওয়ার কোনো পরিকল্পনা নেই কেন্দ্রের। কেন্দ্রের এই উদাসীনতার বিরুদ্ধেই প্রতিবাদ জানাতেই আগামীকাল দুই ঘণ্টার প্রতীকী বিক্ষোভ দেখানো হবে। গত ১৭ অক্টোবর ন্যাশনাল ফেডারেশন অফ ইন্ডিয়ান রেলওয়ে মেন ডক্টর এম রাঘবাইয়া রেল বোর্ডের চেয়ারম্যানকে এ সংক্রান্ত একটি চিঠি প্রদান করে ধর্মঘটের সূচনা দিয়েছেন।